মেইন ম্যেনু

ক্ষুধার্ত স্বামী তার স্ত্রীর মাংস খেতে পারবে!

সৌদি আরবের মুফতি আব্দুল আজিজ বিন আবদুল্লাহ বিভিন্ন সময় অস্বাভাবিক ফতোয়া দিয়ে মিডিয়ার তোপের মুখে পড়েছেন। এবারও তার ব্যাতিক্রম নয়। শেষবার তিনি ভারতের বিখ্যাত সংগীত শিল্পী এ আর রাহমানের বিরুদ্ধে ফতোয়া দিয়েছিলেন। ইরানীয়ান একটি ফিল্ম যার নাম ‘মোহাম্মদ’ রাখা হয়, সেই ছবিতে গান গাওয়ার জন্য তাকে উদ্দেশ্য করে অনেক কিছু বলা হয়।

এবার তার দেয়া ফতোয়া ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি করেছেন। মিররের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সৌদি আরবে দেয়া একটি ফতোয়ায় তিনি বলেন, স্বামী যখন ক্ষুধার্ত থাকবেন তখন সে তার স্ত্রীর শরীরের মাংস পর্যন্ত খেতে পাড়বেন।

সৌদি আরবের এই জ্ঞানী ব্যক্তি ‘মহিলাদের ত্যাগ ও স্বামীর প্রতি তাদের কর্তব্য’ নিয়ে ফতোয়া দেয়ার সময় এই কথা বলেন। বিশ্ব মানবাধিকার সংস্থা এই ফতোয়ার বিরোধিতা করেছেন।

তার দেয়া ফতোয়া মতে, স্বামী জীবনের সবচেয়ে করুণ পরিস্থিতিতে তার স্ত্রীর শরীরের মাংস ভক্ষণ করতে পারবে। এর আগে সে ইসলামী দৃষ্টিকোণ থেকে বলেছিলেন, পৃথিবীর সকল গির্জা ভেঙ্গে ফেলার আদেশ দিয়ে সমালোচনার ঝড়ে পড়েছিলেন।

যাই হোক, সৌদি আরবের একটি স্থানীয় গণমাধ্যমকে মুফতি আব্দুল আজিজ বিন আবদুল্লাহ জানিয়েছেন, এরকম কোন ফতোয়া তিনি দেননি। তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। বিশ্ব মুসলিমদের মাঝে কলহ সৃষ্টির জন্য এসব করা হচ্ছে।

সিএনএন আরবির একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী তার কর্তৃক এরকম ফতোয়া দেয়া হয়েছে দাবি করে ইস্রাফিল আল-মাগরিবি নামের জনৈক একজন ব্লগার এসব লিখেছেন।–সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে।