মেইন ম্যেনু

ক্ষুব্ধ কেজরীবাল, দল থেকে বহিষ্কৃত হতে পারেন তোমর

ভূয়া ডিগ্রি বিতর্কে শেষ পর্যন্ত কি দল থেকেই বহিষ্কৃত হতে চলেছেন আম আদমি পার্টি বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ তোমর? বৃহস্পতিবার রাতে আপের দলীয় বৈঠকে তোমর এবং তাঁকে নিয়ে তৈরি হওয়া চলতি বিতর্কে কী পদক্ষেপ করা উচিত্ তা নিয়ে আলোচনা হয়। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকেই তোমরকে দল থেকে বহিষ্কারের বিষয়ে আলোচনা হয়। আগামী দু’তিন দিনের মধ্যে দলের এই সিদ্ধান্ত তাঁকে জানিয়ে দেওয়া হতে পারে।

সূত্রের খবর, তোমরের ভূয়ো ডিগ্রি নিয়ে ওঠা বিতর্কে দলীয় বিধাযকের উপর যথেষ্ট ক্ষুব্ধ আপ সুপ্রিমো তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল। দলের কাছেও সত্যি গোপন করার বিষয়টি একেবারেই ভাল ভাবে নেননি কেজরীবাল। দুর্নীতি বিরোধী এবং স্বচ্ছ রাজনীতির ডাক দিয়ে ক্ষমতায় আসা আপের ভাবমূর্তিও নষ্ট হয়েছে এই বিতর্কে। বিজেপি তথা বিরোধী দলগুলির লাগাতার আক্রমণে ক্রমশ পিছু হঠা আপ নেতৃত্বকে একটা কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হতই। সেই ‘সিদ্ধান্ত’ই সম্ভবত তোমরের বহিষ্কার।

এ দিকে শুক্রবার সাকেতের আদালতে তোমরের জামিন খারিজ হওয়ার পর তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যেতে খুব সম্ভবত প্রাক্তন মন্ত্রীকে বিহারে নিয়ে যেতে পারেন তদন্তকারীরা। তোমর জানিয়েছিলেন, তিনি মুঙ্গের কলেজ থেকে আইন পাশ করেছেন। বৃহস্পতিবার ওই কলেজের অধ্যক্ষ জানান, ১৯৯৪ থেকে ১৯৯৯ পর্যন্ত কোনও এক জিতেন্দ্র সিংহ তোমর তাঁদের কলেজ থেকে আইন পাশ করেছেন। কলেজে সেই নথিও আছে। তবে সেই নথিতে কোনও ছবি না থাকায় এই তোমরই দিল্লির প্রাক্তন মন্ত্রী কি না তা জানাতে পারেননি তিনি। ফলে বেড়েছে বিতর্ক।

তবে তোমর একা নন। নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে ভুল তথ্য দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আপের আরও এক বিধায়ক বিশেষ রবির বিরুদ্ধে। বধু নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে প্রভাবশালী আপ নেতা সোমনাথ ভারতীর বিরুদ্ধেও। দলের ভাবমূর্তি উদ্ধারে তোমরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও বাকিদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, বা আদৌ হবে কি না, তা নিয়ে ধোঁয়াশা থাকছেই।



« (পূর্বের সংবাদ)
(পরের সংবাদ) »