মেইন ম্যেনু

পাবনার আটঘরিয়ায় ভূমি মন্ত্রী

খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে বিদ্যুত সেক্টর অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে

ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. বলেছেন, ২০২০ সালের মধ্যে দেশে শতভাগ গ্রাহকের মাঝে বিদ্যুৎ সেবা পৌঁছাতে বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, সরকার সারাদেশে বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হয়েছে। মন্ত্রী বলেন, ৩ লাখ ৯ হাজার সেচ গ্রাহকের মাঝে বিদ্যুৎ সুবিধা নিশ্চিত হওয়ায় দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে অনেকদুর এগিয়েছে।

আজ পাবনার আটঘরিয়ার কুমারেশ্বরে অনুষ্ঠিত আটঘরিয়া উপজেলার ২৮টি গ্রামে ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২৮৮ জন গ্রাহকের বিদ্যুৎ সেবা নিশ্চিতকরণে ২১ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন সংযোগ প্রদান উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমি মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকার যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, ভিজিডি, ভিজিএফ, মাতৃত্বকালীন ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, পঙ্গু ভাতা, নারীর ক্ষমতায়ন, নারীদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করার সকল প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. আজ পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার সিংহরিয়া, চাঁদপুর, গোড়রী, গঙ্গারামপুর, কন্দর্পপুর, আটঘরিয়া থানাপাড়া, কুমারেশ্বও, কঢ়ুয়ারামপুর মধ্যপাড়া মাজপাড়া (গুচ্ছগ্রাম, ডাঙ্গাপাড়া, পূর্ব পাড়া ও পশ্চিমপাড়া), গোকুলনগর, নওদাপাড়া ঘোনাপাড়া, কুমারগাড়ী, হিদাসকোল গাঙ্গপাড়া, মহেষপুর, চেšবাড়িয়া (মাথালভাঙ্গা, অটোপাড়া), চাচকিয়া, শ্রীপুর, রঘুরামপুর, চন্ডিপাশা, নিশিপাড়া, নগরচাচকিয়া ও ষাটগাছা (মধ্যপাড়া, অটোপাড়া, ঈদগাহ মাঠ, উত্তরপাড়ায় মোট ২১ কিলোমিটার বিদ্যুত লাইন সংযোগের উদ্বোধন করেন। ৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ১২৮৮ জন গ্রাহক বিদ্যুৎ লাইন সংযোগের আওতায় এসেছে। ফলে আটঘরিয়া উপজেলায় এ সরকারের আমলে ১৫ হাজার ৮৩৬ জন গ্রাহক ১৮৯ কি.মি. বিদ্যুৎ সংযোগের সেবা পাচ্ছেন। মন্ত্রী গ্রামের সকল শিশুকে স্কুলে পাঠানো নিশ্চিত করতে অভিভাবক, শিক্ষক ও সমাজসেবকদের প্রতি আহ্বান জানান।

পরে ভূমিমন্ত্রী ঈশ্বরদী উপজেলার গড়গড়ী বাগানপাড়া, চরগড়গড়ী দক্ষিণ পাড়া, চরগড়গড়ী নতুনপাড়া, চর আওতাপাড়া, চর ছলিমপুর, কাঠালবাড়ীয়া, মুলাডুলি ঝাকরপাড়া, চন্ডিপুর, খালিশপুর, মারমী পূর্বপাড়া, রহিমপুর, বাগবাড়ীয়া পশ্চিম পাড়া, গোয়ালবাথান, চরকুড়–লিয়া মালপাড়া, চরকুড়–লিয়া ক্যানালপাড়া ও কদিমপাড়ায় ১ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ১১ কি.মি. বিদ্যুৎ সংযোগ লাইনের উদ্বোধন করেন।

ভূমি মন্ত্রী শরীফ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সরকার প্রযুক্তি জ্ঞানসম্পন্ন আধুনিক সোনার বাংলাদেশ জাতিকে উপহার দিতে আন্তরিকতার সাথে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। মন্ত্রী সেবার মনোভাব নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ সেবাপ্রদানকারী কর্মীদের কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা প্রদান নিশ্চিত করতে হবে। তিনি সেবা প্রত্যাশী গ্রাহকগণের প্রতি সম্মানের সাথে আচরণ ও সহযোগিতা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ দেন।