মেইন ম্যেনু

খাবারের দাবিতে খাদ্য দফতরে হনুমান দলের অবস্থান কর্মসূচি!

‌‘ভাত দে কাপড় দে, নইলে গদি ছাইড়া দে’ এমন দাবি মানুষের গলায় শোনা গেলেও এবার ঘটেছে একদল হনুমানের ক্ষেত্রে। প্রথমে শান্তিপুর্ণ বিক্ষোভ হলেও এরপরেই প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে দাপাদাপি শুরু করে হনুমানের দল।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানা গেছে।

সকাল সকাল ওরা ভারতের বাঁকুড়ার ছাতনার বিডিও অফিসের খাদ্য দফতরে হাজির। শুশুনিয়া পাহাড় থেকে নেমে আসা কয়েকটি হনুমানের তাণ্ডবে ছাতনার খাদ্য ও সরবরাহ দফতরের অফিসে শুক্রবার সকাল থেকে হুলুস্থুল কাণ্ড।

খাবারের দাবিতে খাদ্য দফতরের একমাত্র দরজা আটকে একদল হনুমান লেজ গুটিয়ে প্রায় আধ ঘণ্টা দিব্যি অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। প্রথমে শান্তিপুর্ণ বিক্ষোভ হলেও এরপরেই প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে দাপাদাপি শুরু হয়।

দফতরের ভেতরে থাকা কর্মীদের তখন ‘ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি’ অবস্থা! হনুমানেরদল কখনো দফতরে আসা সাধারণ মানুষের দিকে তেড়ে যায়, পর মুহূর্তে আবার দফতরের ভেতরে থাকা কর্মীদের দাঁত খিঁচিয়ে ভয় দেখায়।

হনুমান দলের কাণ্ড কারখানায় তখন দফতরের কাজ কার্যত লাটে উঠে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর সৌজন্যে রেহাই পাওয়া যায়। নিজের দোকান থেকে এক প্যকেট বিস্কুট এনে ওই ব্যবসায়ী হনুমানের দলকে খাওয়াতেই শান্ত হয়। এলাকা ছেড়ে না গেলেও খাদ্য দফতরের ছাদে উঠে নিজেদের মধ্যে খেলা করতে শুরু করে হনুমানের দল ।

প্রথমে আতঙ্কিত হয়ে পড়লেও পরে রামভক্তদের কাণ্ডকারখানা খাদ্য দফতরের কর্মীরা বেশ উপভোগই করেছেন। হনুমানরা মুখ ফুটে কিছু না বলতে পারলেও খাদ্য দফতরের কর্মীদের উদ্যেশ্যে কেউ কেউ বলে উঠেন, আপনারা তৈরি থাকুন। অবিলম্বে দাবি পূরণ না হলে আরো বৃহত্তর কর্মসূচিতে নামবে হনুমানের দল।