মেইন ম্যেনু

খালেদাকে কারাগারে থাকতে হতে পারে : হাছান মাহমুদ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আগামী ৫ জানুয়ারি কারাগারে থাকতে হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত মানুষ হত্যাকারী, বোমাবাজ, আগুন সন্ত্রাসী বিএনপি জামায়াত নেতাদের বিচারের দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধনে শনিবার সকালে তিনি এ মন্ত্রব্য করেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ৫ জানুয়ারিকে বিএনপি গণতন্ত্র হত্যা দিবস বলে। আর এবার সেই দিনই বিএনপি নেত্রী কোর্টে গিয়ে হাজিরা দিয়েছেন। আগামী ৫ই জানুয়ারি তাকে (খালেদা জিয়া) কারাগারেও থাকতে হতে পারে।

তিনি বলেন, ১৩, ১৪, ১৫ পর্যন্ত আন্দোলনের নামে যেভাবে পেট্রোল বোমা, বাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মানুষ হত্যা করা হয়েছে, মানুষকে পঙ্গু করা হয়েছে রাজনীতির নামে এই ধরণের হত্যাকাণ্ড পৃথিবীর কোথাও হয়নি। এখনও হচ্ছে না।

তাই সেই সময় যারা এসব হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিল ন্যায় বিচারের স্বার্থে তাদের বিচার হওয়া উচিত। তাই সরকারের কাছে আমি অনুরোধ করবো বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে পেট্রোল বোমা মেরে যারা মানুষ হত্যা করেছিল তাদেরকে দ্রুত বিচারের আওতায় আনা হোক যোগ করেন তিনি।

সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী বলেন, ৫ই জানুয়ারি নির্বাচন না হলে দেশে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকত না। বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় থাকত না। আর বিএনপি এখন যেসব কর্মসূচি পালন করছে সেগুলোও তারা পালন করতে পারত না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির সমাবেশ মানে বিচ্ছৃঙ্খলা তৈরি করা। বিচ্ছৃঙ্খলা তৈরি করে দেশে একটি বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করা। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মাধ্যমে বিএনপি বুঝে গেছে জনগণ আর তাদের সাথে নেই। তাই তারা বিশেষ পরিস্থিতি তৈরি করে ক্ষমতায় যেতে চায়।

সমাবেশ ও মানববন্ধনে আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করীমসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।