মেইন ম্যেনু

খালেদাকে ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না : নাসিম

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ‘খালেদাকে আর কোনোদিন এদেশে ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না। গণতান্ত্রিক উপায়েই তাকে সবসময় পরাস্ত করবো।’

সোমবার বিকেলে জাতীয় জাদুঘরের প্রধান মিলনায়তনে ‘জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস নির্মূলে করণীয় নির্ধারণে পেশাজীবী প্রতিনিধিদের জাতীয় কনভেনশন’-এ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘একাত্তর পরবর্তী সময় ও ১৫ আগস্টে আমরা প্রস্তুত ছিলাম না। কিন্তু আজ আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ। সুতরাং আমাদের কেউ পরাস্ত করতে পারবে না।’

আগামী নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘২০১৯ সালের আগে কোনো নির্বাচন হবে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই নির্বাচন হবে। আমরা সে লক্ষ্যেই গণতান্ত্রিকভাবে এগুচ্ছি।’

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও জাসদ একাংশের নেত্রী শিরিন আখতার এমপি।

কর্মচারী পেশাজীবী মুক্তিযোদ্ধা সমম্বয় পরিষদ ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলন আয়োজিত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলনের সভাপতি নৌপরিবহনমন্ত্রী শাহজাহান খান এমপি।

মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, ‘আমাদের এখন করণীয় সকল প্রকার ষড়যন্ত্রকে রুখে দিয়ে দেশের উন্নয়নের গতিপথকে সচল রাখা’।

দেশের কল্যাণের কথা ভেবে সরকারের সঙ্গে জনগণকেও এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

বিএনপি ঐক্যের আহবানের প্রসঙ্গে শিরীন আখতার এমপি বলেন, ‘দেশের সকল প্রকার উন্নয়নের বিপরীতে দাঁড়িয়েছে বিএনপি। সুতরাং বিএনপির সঙ্গে কোনো ঐক্য নয়। বরঞ্চ তাদের বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে আমাদের সংকট মোকাবেলার কাজ করতে হবে।’

নৌপরিবহন মন্ত্রী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ‘বিএনপি কারা করেন যারা একাত্তরে আমাদের বিরোধিতা করেছে, যারা ১৫ আগস্টে জাতির জনককে হত্যা করেছে, যারা বর্তমানে জঙ্গিদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে।’

সদ্য গঠিত বিএনপির কমিটি বিষয়ে তিনি বলেন, ‘জামায়াত রাজাকারদের যখন এদেশে বিচার করা হচ্ছে ঠিক তখন তাদের উত্তরসূরিদের বিএনপির নতুন কমিটিতে রাখা হচ্ছে। কমিটিতে জঙ্গিদের অন্তর্ভুক্ত তারা নাকি জঙ্গি নিধন করবেন এসব হাস্যকর।’