মেইন ম্যেনু

খালেদার অপেক্ষায় শ্রমিক দলের সমাবেশ

মহান মে দিবস উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সমাবেশে নেতাকর্মীরা আসতে শুরু করেছে। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রোববার দুপুর ২টা থেকে এ শ্রমিক সমাবেশ শুরু হয়েছে।

মঞ্চ তৈরিসহ ইতোমধ্যে সমাবেশের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন সংলগ্ন অংশে উত্তরমুখী করে মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। সমাবেশের বক্তব্য প্রচারের জন্য উদ্যানের মধ্যে ৩০টির মতো মাইক লাগানো হয়েছে। শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসাইন এতে সভাপতিত্ব করবেন।

দুপুর ২টায় সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সাড়ে ১২টা থেকেই রাজধানী ও এর আশপাশের এলাকা থেকে নেতাকর্মীরা সমাবেশস্থলে আসতে শুরু করেছে। ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে খণ্ড খণ্ড মিছিল সহকারে তারা দলে দলে একত্রিত হচ্ছেন সমাবেশস্থলে। এছাড়া মৎস্য ভবন এলাকায়ও অনেক নেতাকর্মীকে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

সমাবেশে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি, আইনশৃঙ্খলার অবনতি, গণতন্ত্রহীনতা, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, শ্রমিক ও সাধারণ মানুষের সমস্যাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রধান অতিথির ভাষণ দেবেন।

এ প্রসঙ্গে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান শনিবার সকালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মঞ্চ তৈরির কাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, শ্রমিক সমাবেশে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে বেগম খালেদা জিয়া কথা বলবেন। এছাড়া সরকারের শ্রমবিরোধী নীতি নিয়েও কথা বলবেন তিনি।

শ্রমিক সমাবেশে আগত নেতাকর্মীদের চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য উদ্যানের ভেতরে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) এবং জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের উদ্যোগে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়েছে।

এদিকে, শ্রমিক সমাবেশ উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন সংলগ্ন গেট দিয়ে উদ্যানে প্রবেশকালে নেতাকর্মীসহ সবার শরীর তল্লাশি করছে পুলিশ। পোষাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকের পুলিশও উপস্থিত রয়েছেন।