মেইন ম্যেনু

খালেদার ট্রাস্ট মামলার পরবর্তী সাক্ষ্য ১০ ডিসেম্বর

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ নয়জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির দুই মামলার পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ১০ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার ঢাকার বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদ্দার পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরার জন্য নতুন এ দিন ধার্য করেন।

খালেদা জিয়া অসুস্থতাজনিত কারণে আদালতে হাজির হতে পারেননি। তার পক্ষে আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, জয়নুল আবেদীন মেজবাহ ও তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ হাজিরা দেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়। পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় আদালতে অনুপস্থিতির জন্য দুই মামলায় খালেদা জিয়ার পক্ষে আবেদন জানান তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া। আগামী ধার্য তারিখে খালেদা আদালতে হাজির হবেন বলেও জানান তিনি। আদালত খালেদার অনুপস্থিতির আবেদন মঞ্জুর করে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষীর জেরা ও নতুন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণের আদেশ দেন।

অন্যদিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ বিধিসম্মত বলে দেওয়া হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে লিভ টু আপিল বিচারাধীন থাকার কথা উল্লেখ করে এ মামলার জেরা-সাক্ষ্য গ্রহণ পেছাতে সময়ের আবেদন করেন অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া। এ আবেদনটি মঞ্জুর করে তা মুলতবি রেখেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার আদালতে সাক্ষ্য দেন সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের এসইভিপি জিয়াউদ্দিন এম ঘুর্নি, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার কামরুজ্জামান, দুদকের কনস্টেবল মনজুরুল হক ও সিরাজউদ্দিন। জেরা করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী ও অন্য আসামির আইনজীবীরা। তাদের জেরা শেষে আদালতে সাক্ষ্য দেন দুদকের সহকারী পরিচালক নাজমুল হাসান।