মেইন ম্যেনু

খালেদার ড্যান্ডি ডাইং মামলায় সাক্ষ্য পেছাল

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ড্যান্ডি ডাইং কোম্পনির ঋণখেলাপির মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ পিছিয়ে ৩ এপ্রিল ধার্য করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকার প্রথম অর্থঋণ আদালতের বিচারক ফাতেমা ফেরদৌস বিবাদী পক্ষের সময় আবেদন মঞ্জুর এই তারিখ ধার্য করেন।

মামলাটিতে ২০১৫ সালের ১৫ জুলাই বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পক্ষে আদালতে জবাব দাখিল করা হয়।

ড্যান্ডি ডাইং কোম্পানির ৪৫ কোটি টাকা খেলাপি ঋণের ওই মামলায় এর আগে মামলাটিতে বিবাদী হিসেবে থাকা কোকা মারা যাওয়ায় ২০১৫ সালের ১৬ মার্চ একই আদালত খালেদা জিয়া ও কোকার স্ত্রী সন্তানদের বিবাদী হিসেবে পক্ষভুক্ত করেন।

মামলাটিতে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ আরও ১০ জন বিবাদী রয়েছেন।

৪৫ কোটি টাকা ঋণখেলাপির ওই মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ছাড়াও অপর বিবাদীরা হলেন, প্রয়াত সাঈদ এস্কাদরের ছেলে শামস এস্কান্দার ও সাফিন এস্কান্দার, মেয়ে সুমাইয়া এস্কান্দার, স্ত্রী বেগম নাসরিন আহমেদ, গিয়াস উদ্দিন আল মামুন, মামুনের স্ত্রী শাহীনা ইয়াসমিন, কাজী গালিব আহমেদ, মিসেস শামসুন নাহার ও মাসুদ হাসান।

২০১৩ সালের ২ অক্টোবর ঢাকার প্রথম অর্থঋণ আদালতে মামলাটি করেন সোনালী ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয় শাখার সিনিয়র নির্বাহী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম। ৪৫ কোটি ৫৯ লাখ ৩৭ হাজার ২৯৫ টাকা ঋণখেলাপির অভিযোগে এ মামলাটি দায়ের করা হয়।