মেইন ম্যেনু

খালেদার বাসভবন ঘেরাওয়ে পুলিশের বাধা

মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য প্রত্যাহারের দাবিতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসভবন ঘেরাও কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে পুলিশের বাধার মুখে পড়েছেন ‘মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’ নামে একটি সংগঠনের কর্মীরা।

শনিবার সকাল সোয়া ১১টার দিকে বনানী মাঠ সংলগ্ন রাস্তা থেকে খালেদা জিয়ার বাসভবনের দিকে রওনা দিলে পুলিশ বাধায় যেতে পারেনি। এসময় নেতাকর্মীরা রাস্তার উপর বসে পড়েন।

একই ইস্যুতে এর আগেও খালেদা জিয়ার বাসভবন ঘেরাও কর্মসূচি করতে দেয়নি পুলিশ। গুলশান-২ নম্বর গোলচত্ত্বর এলাকাতেই একাধিকবার বিক্ষোভকারীদের আটকে দিয়েছে পুলিশ।

সম্প্রতি রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় খালেদা জিয়া বলেছিলেন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক আছে। তার এই মন্তব্যে সমালোচনার ঝড় উঠলেও বিএনপি নেতারা কথা বলছেন একই সুরে। তারা দাবি তুলছেন শহীদের তালিকা করার। স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় আরও একধাপ বাড়িয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবীরা নির্বোধের মতো মরেছেন দাবি করে কেন তাদেরকে সম্মান জানানো হয় সে প্রশ্ন তুলেছেন।

‘মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড’ এর কর্মীদের দাবির মধ্যে রয়েছে- মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতিকারী ব্যক্তি, সংগঠনকে আইন আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা ও তাদের সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করা, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও তাদের পোষ্যদের চাকরি থেকে ছাঁটাই এবং নিয়োগে অযোগ্য ঘোষণা, মুক্তিযোদ্ধা কোটার জন্য ৩০ শতাংশই সংরক্ষণ এবং তাদের জন্য আলাদা নিয়োগ, জামায়াত শিবিরের সব প্রতিষ্ঠানে রাষ্ট্রের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা, জামায়াতসহ তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত দলগুলোকে নিষিদ্ধ ঘোষণা, পাকিস্তানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করা।

শহীদদের নিয়ে খালেদা জিয়ার মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা হয়েছে। তাকে ৩ মার্চ আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়ে সমন জারি করা হয়েছে। সে সমন খালেদা জিয়ার বাসায় টানিয়ে দিয়েছে পুলিশ।