মেইন ম্যেনু

খালেদা জিয়ার বক্তব্যের ব্যাখ্যা চান প্রধানমন্ত্রী

‘হাসিনাবিহীন’ নির্বাচন বলতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কি বোঝাতে চাচ্ছেন? ২১শে আগস্টের মতো আবার গ্রেনেড হামলা করে হত্যা করার কোনো পরিকল্পনা করছেন কি না?

রোববার রাতে গণভবনে দলের কার্যনিবাহী কমিটির বৈঠকে এভাবেই প্রশ্ন তোলেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনপির কাউন্সিলে শনিবার প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে খালেদা জিয়া যে বক্তব্য দিয়েছেন সে প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা বলেন, তাকে ছাড়া যে আগামী জাতীয় নির্বাচন হবে এর অর্থ কি?

তিনি বলেন, ২০০৪ সালে গ্রেনেড হামলাসহ তাকে হত্যার যে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিলো তার প্রতিটির আগেই, তাকে নিয়ে বক্তব্য দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

ওই বক্তব্যের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, শকুনের দোয়ায় কখনো গরু মরে না, বহুবার আমাকে মারার চেষ্টা করা হয়েছে, আল্লাহর রহমতে আমি জীবিত আছি। জনগণের জন্য কাজ করে যাচ্ছি, জনগণের দোয়া পাচ্ছি।

আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে বক্তব্যের শুরুতেই দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমনের ৩য় মৃত্যু বার্ষিকীতে শোক প্রকাশ করেন ।

বাংলাদেশের যে অর্থনৈতিক উন্নতি হয়েছে তা অব্যহত রাখা প্রয়োজন। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের কারণে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের তারিখ পরিবর্তন করতে হবে। আমাদের পার্টির যে ডেলিগেট ও কাউন্সিলররা আসে, তা তৃণমূল থেকে আসে।

আমরা নির্বাচনকে গুরুত্ব দিই। নির্বাচনকে আমরা গুরুত্ব দিই বলেই আমরা নির্বাচন চলাকালীন তারা আসতে পারবে না।তাই তারিখটা আমাদের একটু অ্যাডজাস্ট করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী রাষ্টীয়ভাবে এবং সাংগঠনিকভাবে কর্মসূচী নিয়ে উদযাপন করা হবে।