মেইন ম্যেনু

খুব সহজে ভীষণ সুস্বাদু দই বড়া তৈরির একটি দারুণ রেসিপি !

ইফতারির টেবিলে একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় খাবার হচ্ছে দই বড়া। এই খাবারটি অনেকেই বাইরে থেকে কিনে খান, যদিও বাড়িতেই খুব সুস্বাদু দই বড়া তৈরি সম্ভব। খুব কঠিন মনে হয় দই বড়া তৈরির কাজটি? তাহলে ঝটপট দেখে নিন আতিয়া আমজাদের দই বড়া তৈরির খুব সহজ একটি রেসিপি।

উপকরণ

কালো খোসাসহ মাসকলাই-এর ডাল ১ কাপ

বেকিং সোডা ১ চা চামচ

টক দই ১ কাপ

মিস্টি দই ১ কাপ

টালা জিরার গুঁড়ো ২ টে চামচ

টালা শুকনা মরিচের গুঁড়ো ১/২ চা চামচ

তেঁতুলের ক্বাথ ১/২ কাপ ( ১/২ চা চামচ করে লবণ, বিট লবণ, মরিচের গুঁড়ো ,জিরার গুঁড়ো ও ১ চা চামচ চিনি আলাদা ভাবে মিশিয়ে নিবেন)

কাঁচা মরিচ বাটা ১ চা চামচ

পুদিনা পাতা বাটা ১ টা চামচ

বিট লবণ ১ চা চামচ

লবণ ১ চা চামচ বা পরিমান মতো দ-এ মেশানোর জন্য

পানি ১/৪ কাপ ও ৪ কাপ আলাদা আলাদা

লবণ ৫ টে চামচ পানিতে দেয়ার জন্য

তেল ১ কাপ

প্রনালি

-১ লিটার পানিতে বেকিং সোডা গুলে মাসকলাই-এর ডাল ৮-১২ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন এবং পানি ঝরিয়ে পাটায় বা ব্লেন্ডারের সাহায্যে মিহি পেস্ট করে নিন। খেয়াল রাখতে হবে পেস্ট যেন ঘন হয়।

-কাপ পানিতে ৫ টা চামচ লবন গুলিয়ে রাখুন।

-ডালের পেস্টে ১/৪ কাপ পানি দিয়ে কাঁটা চামচের সাহায্যে ভালো করে ফেটিয়ে নিতে হবে ৫/৭ মিনিট।

-এবার তেল গরম হলে ডালের পেস্ট দিয়ে ছোট ছোট বড়া ভেজে লবণ মেশানো পানিতে দিয়ে ১৫/২০ মিনিট চুবিয়ে রাখুন।

-এই ফাঁকে দই-এর সসটি রেডি করতে হবে। তেঁতুলের ক্বাথ ও টালা মরিচের গুঁড়ো ছাড়া বাকি সব উপাদান মিশিয়ে ১/৪ কাপ পানি দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন এবং চেখে দেখুন সব ঠিক আছে কিনা। না হলে স্বাদ অনুযায়ী এ্যাডজাস্ট করুন।

-এবার বড়া গুলো পানি থেকে তুলে দই-এ আলতো করে দিয়ে দিন ও ঘন্টা খানিক ভিজতে দিন।

-তেঁতুলের ক্বাথে চিনি, বিট লবন, লবণ, টালা জিরার গুঁড়ো ও টালা মরিচের গুঁড়ো মিশিয়ে রাখুন।

-তেঁতুলের ক্বাথ ও স্বাদ মতো টালা মরিচের গুঁড়ো দই বড়ার ওপরে ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।