মেইন ম্যেনু

খেলার মাঠ রেখে এবার নির্বাচনের মাঠে নাফিসা কামাল

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মাধ্যমে ক্রিকেটের মাঠে অত্যন্ত পরিচিত মুখ নাফিসা কামাল। কুমিল্লার কৃতী সন্তান ও পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের (লোটাস কামাল) মেয়ে হলেও দেশব্যাপী নাফিসার বেশি পরিচিতি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কর্ণধার হিসেবে।

এবার ক্রিকেটের মাঠ ছেড়ে তিনি নেমেছেন কুসিকের ভোটের মাঠে। সোমবার নাফিসা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে দলীয় মেয়র প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানার পক্ষে মাঠে প্রচারণা চালান। ক্রিকেটের মাঠ ছেড়ে ভোটের মাঠে নাফিসার এ সরব উপস্থিতি সীমার ভোটের মাঠে প্রচারণায় যেন ভিন্নমাত্রা যোগ হয়।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, নাফিসা কামাল সোমবার দিনভর জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার নগরীর নেউরা, রাজাপাড়া, ঢুলিপাড়া, শাকতলা, কাজীপাড়া, আশ্রাফপুর, বাস টার্মিনাল, ওয়াপদা কলোনি ও জাঙ্গালিয়া, পদুয়ারবাজার এলাকায় সীমার জন্য দলীয় নেতাদের নিয়ে গণসংযোগ করেন।

এসময় দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ওমর ফারুক, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত, সদর দক্ষিণ উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সারোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা আবু তাহের, আবদুল হাই বাবলু, চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, শাহ জালাল মজুমদার, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শিউলীসহ স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পথসভায় নাফিসা কামাল বলেন, আওয়ামী লীগের কাছে উন্নয়নের জন্য চাইতে হয় না। দায়িত্ব নিয়েই জনগণের সেবা করে। বিগত দিনে কুমিল্লা সিটিতে যিনি দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি বিন্দুমাত্র উন্নয়ন করেননি। এই নগরীর উন্নয়নের জন্য ও একটি পরিচ্ছন্ন সিটি গড়তে আওয়ামী লীগ প্রার্থী সীমাকে ভোট দিন। কুমিল্লার সন্তান হিসেবে ওয়াদা করতে পারি, নৌকার প্রার্থী সীমা বিজয়ী হলে সুন্দর একটি সিটি উপহার পাবেন।

কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক আলহাজ ওমর ফারুক বলেন, নগরীর প্রতিটি এলাকায় নৌকার পক্ষে যে গণজোয়ার দেখতে পাচ্ছি ইনশাআল্লাহ ৩০ মার্চ কেউ নৌকার বিজয় ঠেকাতে পারবে না।

নৌকার প্রার্থী সীমা বলেন, আমি নগরবাসীর সেবা করতে চাই। অতীতেও আমি ন্যায়নীতি ও সততার সঙ্গে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছি। আমি নির্বাচিত হলে সবার জন্য আমার দ্বার উন্মুক্ত থাকবে। কেউ কমিশন নিতে পারবে না। কোনো সিন্ডিকেট থাকবে না। আমার কাছে চাইতে হবে না।

কোথায় কি করতে হবে-সেটা আমার জানা আছে। একটি সুন্দর পরিচ্ছন্ন, মাদক-সন্ত্রাসমুক্ত নগরী গড়তে আপনাদের ভোট, দোয়া ও ভালোবাসা চাই। কথা দিচ্ছি জীবন দিয়ে হলেও আপনাদের পাশে থাকব।

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে কেন্দ্রীয় টিম সমন্বয়ক একেএম এনামুল হক শামীম বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিলে উন্নয়ন হয়। নৌকায় ভোট দিলে মানুষ শান্তি পায়। নৌকায় ভোট দিলে বাংলাদেশ বিশ্ব মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত হয়। আওয়ামী লীগের কাছে উন্নয়নের জন্য কোনো কিছু চাইতে হয় না। স্বাধীনতা পক্ষের দল দরদ নিয়েই উন্নয়ন করে। কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারাদেশে উন্নয়নের কাজ চলছে। এ উন্নয়নধারা সর্বস্তরে পৌঁছে দিতে কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিন।

এদিকে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে দলের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাদের অংশগ্রহণে নগরীর অশোকতলা এলাকায় নৌকার পক্ষে একটি মিছিল বের করা হয়।-জাগো নিউজ