মেইন ম্যেনু

গভীর রাতে একসঙ্গে ক্যাটরিনা-রণবীর!

‘পিকচার আভি বাকি হে মেরে দোস্ত’। ক্যাটরিনা কাইফ আর রণবীর কাপুরের সম্পর্ক গড়তে দেখেছেন। যখন ভাঙল তখনও সাক্ষী থেকেছেন। এবারের টুইস্টটা মিস করলে কী করে চলবে? প্যাচ-আপ হচ্ছে ক্যাটরিনা আর রণবীরের।

এ যেন এক ভাঙা গড়ার খেলা। প্রেমের সম্পর্কের চড়াই উতরাইয়ে যেমন আছে গড়ার রোমাঞ্চ তেমনই আছে ভাঙার যন্ত্রণা। জীবনে প্রেমের উপন্যাস আরও রোমাঞ্চ তৈরি করে যখন, ভাঙা সম্পর্ক জুড়তে একের পর এক রহস্যের দরজা খুলে প্রেমের ঘরে পা রাখে প্রেমিক-প্রেমিকা।
সাধারণ কিংবা যারা সাধারণ নন, সবার ক্ষেত্রেই ক্ষনে ক্ষনে থাকে টুইস্ট। এই তো কিছু দিন আগেই ব্রেক-আপ হয়েছে বলিউড ডিভা ক্যাটরিনা কাইফ এবং ‘রকস্টার’ রণবীর কাপুরের। মন খারাপ দু’জনেরই। তবে এতটাই পেশাদার দু’জনই, ‘মনে জোয়ার এলেও মুখে তবু ফুল ফোটে না’।

নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে বিশেষ কোনও কথা রণবীর কাপুর কখনই বলেননি। ক্যাটরিনাও থেকেছেন নির্বাক। এর আগেও দীপিকার সঙ্গে সম্পর্কের বিচ্ছেদ নিয়ে চুপ থেকেছেন রণবীর। কিন্তু এবার যেটা ঘটেছে, সেটা আগে কখনও ঘটেনি। নিজের সম্পর্ক নিয়ে রণবীর মুখ খুলেছেন, তবে সেটা একেবারেই নিজস্ব ব্যক্তিত্ব নিয়েই। ‘আমাকে অনেকে প্লেবয় মনে করে। এটা সত্য। তবে পুরোপুরি সত্য নয়’, রণবীরের এই মন্তব্যের পরই জল্পনা শুরু হয়েছে বলিউডে, তবে কী সম্পর্কে এবার প্যাচ-আপ পর্যায়?

আছে আরও একটা টুইস্ট। অমিতাভ বচ্চনের দীবাবলি পার্টিতে একে অপরের মুখও দেখেননি ক্যাট-রণবীর। অথচ, অনিল কাপুরের বাড়িতে ক্যাটরিনা এবং রণবীর দুজনেই ‘একসঙ্গে’ সময় কাটালেন দীর্ঘক্ষণ। বলিউডলাইফ ডট কমের প্রতিবেদন অনুযায়ী ক্যাট এবং রণবীর নাকি গভীর রাত পর্যন্ত অনিল কাপুরের বাড়িতে ছিলেন এবং একই সঙ্গে বাড়ি ফিরেছেন! তাহলে কী এবার মান, অভিমান ভাঙিয়ে প্যাচ-আপের ট্রাম কার্ডটা খেলেই ফেললেন রণবীর। এতে কী গলে যাবেন ক্যাট? এই উত্তর দিতে পারবে কেবল ভবিষৎ! এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা।