মেইন ম্যেনু

গরিবের হক ফিতরা

রমজান, ফিতরা ও ঈদ একই সূত্রে গাঁথা। ফিতরার মাঝেই নিহিত আছে অসহায় গরিব প্রতিবেশির আনন্দ ও ঈদ উৎসব। যা আদায় করে তৃপ্ত ও তুষ্ট হয় মুমিন মুসলমান। পবিত্র রমজান মাসব্যাপী রোজা পালনের পর ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বে প্রতিবেশি অসহায় গরিব-দুঃখী ও আত্মীয়-স্বজনদের জন্য সাধ্যানুযায়ী ঈদের উপহার উপঢৌকন প্রদানে রয়েছে অনেক ফজিলত ও উপকারিতা। তাছাড়া গরিবের জন্য ফিতরা আদায় করাও আবশ্যক।

ফিতরা
‘ফিতর’ মানে হলো ‘রোজা ছাড়া’। অর্থাৎ যা রমজানের রোজা ছাড়ার কারণে আদায় করতে হয়। আর ফিতরাহ মানে হলো প্রকৃতি। যেহেতু ফিতরার মাধ্যমে মানুষ তার পালণীয় রোজার যাবতীয় খতগুলো; ভুলগুলো থেকে মুক্তি লাভ করে। তাছাড়া আত্মশুদ্ধি ও আত্মার আমলকে নির্মল করার জন্যই আল্লাহ তাআলা অসহায়দের মাঝে ফিতরা আদায় করা আবশ্যক করেছেন। এরই নাম হলো ফিতরা। যা অসহায় ও গরিব-দুঃখীর হক।

এ ফিতরা আদায় মুসলিম উম্মাহর স্বচ্ছল ব্যক্তিদের জন্য ইসলামি অনুশাসনের এক নির্দশন। সমাজে যা সাম্যের বিধান প্রচলন করে। আল্লাহর এক অপার বিস্ময় যে, বান্দার জন্য রোজা ফরজ করেছেন। বান্দা আল্লাহর ভয়ে পানাহার ও যৌনাচার, মুনকার কাজ ত্যাগের মাধ্যমে রোজা পালন করে।

এই রোজা পালনের সময় কোনোভাবে যদি রোজার আংশিক ক্ষতি, ত্রুটি-বিচ্যুতি হয়; তবে তার সমাধান ও তা থেকে মুক্তির মাধ্যম হচ্ছে ফিতরা আদায়। যা অসচ্ছল, অসহায় গরিব-দুঃখীদের মাঝে ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বেই আদায় করা। কোনো কারণে ঈদগাহে যাওয়ার পূর্বে আদায় করতে না পারলে পরেও আদায় করা যাবে। এ ফিতরা আদায় মুসলিম উম্মাহর স্বচ্ছল ব্যক্তিদের জন্য একান্ত আবশ্যকীয় কাজ।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে গরিব ও অসহায় মানুষের প্রতি সদয় হওয়ার জন্য গরিব-দুঃখীর হক ‘ফিতরা’ আদায়ের তাওফিক দান করুন। আমিন।