মেইন ম্যেনু

গরুর মূত্র ও গোবর দিয়ে তৈরি হয় শ্যাম্পু !

আশ্চর্য হলেও সত্য, গরুর গোবর ও মূত্র দিয়ে তৈরি হচ্ছে শ্যাম্পু। ভারতের গুজরাটের সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, গরুর মূত্র ও গোবর দিয়ে তৈরি শ্যাম্পু চুল উজ্জ্বল ও সুন্দর রাখে। এ শ্যাম্পু ব্যবহারে নারীদের চুল ও মুখমণ্ডল ক্লিওপেট্রারের মত সুন্দর ও মসৃণ রাখবে। এ গবেষণার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত শবিতা দর নামে এক গবেষক সর্বদা গবেষণা কাজে নিয়োজিত ছিলেন।

যেভাবে গরুর মূত্র দিয়ে শ্যাম্পু তৈরি হয়: বেশিরভাগ শ্যাম্পু কোম্পানি গরুর গোয়াল থেকে মূত্র সংগ্রহ করে থাকে। নয়াদিল্লীর হলিকাউ ফাউন্ডেশন নামে এক কোম্পানি বর্শনা, মাথুরাসহ আশপাশের বিভিন্ন উৎস থেকে মূত্র ও গোবর সংগ্রহ করে থাকে। দেশি গরুর দিনের প্রথম মূত্র সংগ্রহ করা হয়, কারণ গবেষকরা দিনের প্রথম বেলা কিংবা সকালের মূত্রকে বেশি কার্যকরী হিসেবে ধরেছেন।

পাতাঞ্জলি নামে এক কোম্পানি দুভাবে মূত্র সংগ্রহ করে

১. নিজের বাড়ির পরিবারের তত্ত্বাবধানে গরুকে প্রস্রাব করিয়ে মূত্র সংগ্রহ করা।

২. গরু পালনকারীরা গোয়াল ঘরের একটি চ্যানেলের মাধ্যমে একাধিক গরু থেকে এক সঙ্গে মূত্র ও গোবর সংগ্রহ করেন।

সংগৃহীত গরুর মূত্র মেশিনের ছাঁকন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পরিশোধিত করা হয় এবং পরে এগুলো শ্যাম্পু তৈরির মৌলিক উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়। গরুর গোবর মুখ মন্ডলের ক্রিম হিসেবেও ব্যবহৃত হয়। এছাড়া ধোয়া-মোছার কাজেও এটি ব্যবহৃত হচ্ছে।

গবাদিপশু বিশেষজ্ঞের মত, গরুর মূত্র ফাংগাল সংক্রমন ও ব্যকটেরিয়া প্রতিরোধ করে। ফলে এগুলো ব্যবহারে মুখের ব্রণ দূর করে, চুলকে রাখে মজবুত ও খুশকিমুক্ত। এছাড়া এটি অক্সিডেন্ট প্রতিরোধক বলে চুল পড়া কমায়।

গরুর মূত্রের দাম গরুর দুধের চেয়েও বেশি। প্রতিলিটার পরিশোধিত মূত্রের দাম প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ টাকা। বর্তমানে গোয়ালিনীরা মূত্র বিক্রি করে অনেকাই লাভবান হচ্ছেন বলে জানা গেছে। এ মূত্রের চাহিদা এতটাই বেশি যে, ইতোমধ্যে চাহিদার তুলনায় মূত্র অপ্রতুল বলে ঘাটতি দেখা দিচ্ছে। ২৫০ মি.লির একটি বোতলের দাম প্রায় ৩০০ টাকা যেখানে থাকে ২০% মূত্র, ৭% বৃষ্টির পানি এবং বাকি অংশে থাকে আমলাসহ অন্যান্য ভেষজ উদ্ভিদ। মূত্র দিয়ে তৈরি শ্যাম্পুতে ভাল ফেনা আসে এবং চুলকে রাখে মসৃণ ও ঝকঝকে।