মেইন ম্যেনু

গরুর মূত্র দিয়ে পরিস্কার করা হবে ভারতের হাসপাতাল

ফিনাইল বন্ধ করে, তার জায়গায় জীবাণুনাশক হিসেবে গোমূত্র ব্যবহার করবে ভারতের সরকারি হাসপাতাল। যার শুরুটা হচ্ছে উত্তর ভারতের অন্যতম বড় সরকারি হাসপাতাল রাজস্থানের সওয়াই মানসিংহ (SMS) থেকে। রাজস্থান সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী, পরীক্ষামূলক ভাবে ১৫দিন দেখা হবে। কতটা কী কাজ দিচ্ছে, তা দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গোমূত্র থেকে তৈরি এই জীবাণুনাশকের নাম দেওয়া হয়েছে ‘গৌ ক্লিন’।

ফিনাইলের পরিবর্তে গোমূত্র ব্যবহারের পরিকল্পনা নতুন নয়। প্রথম যিনি এই প্রস্তাব দিয়েছিলেন, তিনি মন্ত্রী মানেকা গান্ধী। ঠিক হয়েছিল, গোমূত্র থেকে তৈরি ওই জীবাণুনাশক ব্যবহার করা হবে সমস্ত সরকারি দফতরে। গোমূত্র থেকে তৈরি সেই জীবাণুনাশকের নাম তখন ঠিক হয়, গোনাইল। ল্যাবরেটরি পরীক্ষায় দেখা যায়, গোনাইল বা গৌ ক্লিন শুধু অ্যান্টি ফাংগাল নয়, ব্যাক্টিরিয়া ধ্বংস করতেও সক্ষম। তা ছাড়া স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকর নয়।

যাঁরা গোমূত্রের দুর্গন্ধ নিয়ে ভাবছেন, তাঁদের আশ্বস্ত করে জানানো হয়েছে, নিমের সঙ্গে পাইনের নির্যাস থাকায়, দুর্গন্ধ থাকবে না।

SMS হাসপাতালের সুপার ডা. মানপ্রকাশ শর্মা জানান, তিন ডাক্তারকে নিয়ে একটি কমিটি তৈরি হয়েছে। ফিনাইলের পরিবর্ত হিসেবে গোমূত্র কতটা কার্যকরী, তা ওই কমিটি খতিয়ে দেখবে। হাসপাতালের বিভিন্ন ফ্লোর ছাড়াও আইসিইউতে-ও ছড়ানো হবে গৌ ক্লিন।

রাজস্থানের গৌপালন মন্ত্রীর কথায়, আমাদের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হল, গোমূত্রকে আয়ের উত্‍‌স হিসেবে কাজে লাগানো। এইসময়