মেইন ম্যেনু

গরুর রক্ত দিয়ে তৈরি স্ন্যাক্স বারে রাখার নির্দেশ

বেলারুশের রাজধানী মিনস্কে একটি বারে আকস্মিকভাবে এসেছিলেন সেখানকার স্বাস্থ্য দফতরের একটি দল। সেখানে এসে তারা বারের মালিককে যে নির্দেশনা দিলেন তা শুনে মালিক রীতিমতো বিস্মিত।

কর্মকর্তারা বারের মালিককে বলেন, তার দোকানের কাউন্টারে গরুর রক্ত দিয়ে তৈরি হেমাটোজেন স্ন্যাক্স যেন সাজিয়ে রাখা হয়। কারণ এ হেমাটোজেন স্ন্যাক্স আয়রন সমৃদ্ধ। যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানিয়েছে।

এজন্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে দোকান মালিককে চিঠিও দেয়া হয়েছে।

দোকানে মালিক জানান, গরুর রক্ত থেকে তৈরি এসব হেমাটোজেন বার সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন জামানায় শিশুদের কাছে খুব জনপ্রিয় ছিল। কিন্তু আধুনিক সময়ে যারা বারে আসেন তাদের কাছে এ স্ন্যাক্স জনপ্রিয় হবে কিনা সেটি তিনি বুঝতে পারছেন না।

বারের মালিক আরও জানান, তার এখানে যারা মদ্যপান করতে আসে তাদের যদি বলা হয়, তোমরা বিয়ারের সাথে এই হেমাটোজেন বার খাও তখন তারা হাসবে।

কিন্তু স্বাস্থ্য দপ্তর এটিকে মোটেই হাস্যকর কোন বিষয় মনে করছে না। কর্মকর্তারা প্রশ্ন তুলছেন, দোকানে যদি চকলেট বার থাকতে পারে, তাহলে এ হেমাটোজেন বার রাখতে সমস্যা কোথায়?

মানুষজন যাতে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে উৎসাহিত হয় সেজন্যই এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে কর্মকর্তারা উল্লেখ করছেন।