মেইন ম্যেনু

গর্ভাবস্থা থেকেই শিশুর প্রশিক্ষণ সম্ভব!

ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞদের তরফে দাবি করা হয়েছে, তারা শিশুদের গর্ভস্থ অবস্থাতেই প্রশিক্ষণ দিতে সক্ষম।

কথায় আছে একজন নারী যখন গর্ভে সন্তান ধারণ করেন, তখন তাকে হাসি-খুশি থাকতে হয়। তিনি যেমন খান, যেধরণের অনুষ্ঠান শোনেন বা দেখেন বা যে মানসিক পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যান, তার প্রভাব থাকে গর্ভস্থ শিশুর ওপর। অনেক নারীই তাই অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় রক মিউজিক শোনেন, অনেকে আবার বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ পাঠ করেন, কেউ আবার ক্লাসিকাল মিউজিক শোনেন। পরে যাতে সেই জিনিসের প্রতি শিশুর আগ্রহ তৈরি হয়।

একটি ইংরেজি দৈনিকে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ভোপালের সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরা দাবি করেছেন তারা পঁচিশজন অন্তঃসত্ত্বা নারীর ওপর একটি সমীক্ষাটি চালিয়ে ছিলেন। তাদের ‘গর্ভ সংবাদ’ পড়ানো হয়। ‘গর্ভ সংবাদ’- এর মাধ্যমে গর্ভস্থ সন্তানের সঙ্গে তাদের মায়েরা কথা বলতে শেখেন। এই শিক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গর্ভ সংস্কার তপবান কেন্দ্রে’ দেওয়া হয়, যা গত বছরই খোলা হয়েছে।

এখানে গর্ভবতী মায়েদের যোগ ব্যায়াম করানো হয়, গান শুনতে বলা হয় এবং বাচ্চার সঙ্গে কথা বলতে বলা হয়। কিন্তু এর প্রভাব বাস্তবে কতটা পড়েছে জানতে চাওয়া হয় ওই কেন্দ্রেরই এক শিক্ষককের কাছে। ওই কেন্দ্রের এক শিক্ষিকার দাবি, এখনও পর্যন্ত এই প্রশিক্ষন নিয়েছেন এমন চারজন মায়েদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে, যাদের সন্তান হয়ে গেছে। দেখা গেছে তাদের সন্তান অন্য শিশুদের চেয়ে অনেক আলাদা, অনেক বেশি চঞ্চল এবং যেকোনও জিনিস তারা অনেক আগে শিখে যাচ্ছে।

সূত্র: এবিপি আনন্দ



« (পূর্বের সংবাদ)