মেইন ম্যেনু

গহিরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক অর্থ সম্পাদকের উপর ভূমি দস্যুদের হামলা

রাউজানের গহিরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক কাজী আবদুল হান্নান প্রতিপক্ষ ভূমি দস্যুদের হামলায় আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গহিরা ইউনিয়নের কোতোয়ালীঘোনা কাজীপাড়া আরব কাজীর বাড়ী বাসিন্দা কাজী আবদুল হান্নান এ অভিযোগ করেন।

গত ২ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে দশটায় পল্লী বিদ্যুৎতের লোকজন বৈদ্যুতিক মিটার লাগানোর সময় তৌহিদুল আলম ও মিজানসহ দা-কুড়াল দিয়ে কাজী আবদুল হান্নানের গাছ কাটা শুরু করে। এসময় বাদী কাজী আবদুল হান্নান আমার গাছ কাটছ কেন জিজ্ঞাস করলে উক্তিতে তৌহিদ বলে গাছ কাটব সঙ্গে তোকেও কাটব। এ পর্যায়ে তৌহিদ দা দিয়ে কাজী আবদুল হান্নানকে হাতে ও বুকে জখম করে।

পরে কাজী আবদুল হান্নানের আত্মচিৎকার শুনে এলাকার লোকজন এসে উদ্ধার করে দ্রুত রাউজান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ডাক্তারি রিপোর্ট ও বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিলে কাজী আবদুল হান্নান বাদী হয়ে রাউজান থানায় মামলা করে (মামনা নং ৭, তাং ২/৯/১৫)। জানা যায়, তৌহিদুল আলম গং এর বিরুদ্ধে গহিরা ইউনিয়ন পরিষদে জায়গা-জমি সংক্রান্ত একাধিক অভিযোগ রয়েছে (অভিযোগের তাং ১৫/০৬/২০১৪)।

স্থানীয়রা আরো জানান, তৌহিদের পূর্ব পুরুষ থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত অন্যের জমি দখল, ভিটা দখল করে গ্রামে এখন ভূমি দস্যু হিসাবে পরিচিত। তারা আরো বলেন, স্থানীয় একটি পত্রিকায় হান্নানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলে সংবাদ ছাপালে এলাকায় স্থানীয়রা নিন্দা জানান। এবং ঘটনাস্থলে অনুপস্থিত পাঁচজন ও মামলার স্বাক্ষী সমাজ সরদার কাজী নরুল মোস্তফাসহ আটজনের বিরুদ্ধে রাউজান থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করে বিবাদী তৌহিদ আলম।



« (পূর্বের সংবাদ)