মেইন ম্যেনু

গাজীপুরে ডাকাতের গুলিতে মুক্তিযোদ্ধা নিহত, আহত ৩

গাজীপুরে ডাকাতের গুলিতে পরেশ চন্দ্র ঘোষ (৬৫) নামে এক মুক্তিযোদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ সময় নিহতের ভাই ও দুই ভাতিজা আহত হয়েছেন।

রোববার দিনগত মধ্যরাতে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সালনা কাথোরার মৈশানবাড়ি এলাকায় এ ডাকাতি হয়।

আহতরা হলেন- নিহত পরেশের ভাই নরেশ চন্দ্র ঘোষ, ভাতিজা বিধান কৃষ্ণ ঘোষ ও মৃনাল চন্দ্র ঘোষ। আহতদের গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরেশের চাচাতো ভাই আশুতোষ ঘোষ জানান, রাত দুইটার দিকে ৮-১০ জনের মুখোশপরা একদল ডাকাত নরেশ চন্দ্র ঘোষের বাড়িতে হানা দেয়। বাড়ির প্রধান দরজার তালা ভেঙ্গে ও কেটে ভেতরে ঢুকে ডাকাতরা। পরে নরেশ, বিধান ও মৃনালকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে স্বর্ণালংকার ও মালামাল লুট করে। এর পরপরই নরেশের ভাই পরেশ চন্দ্র ঘোষের ঘরেও ডাকাতরা হানা দেয়। এ সময় পরেশের ছেলে গৌতম ঘোষ পলাশ ডাকাতদের চিনে ফেলেছে বললে ডাকাতরা গুলি ছুড়ে। কপালে গুলিবিদ্ধ হলে ঘটনাস্থলেই মুক্তিযোদ্ধা পরেশ মারা যান।

আশুতোষ আরো জানান, ডাকাতরা তার মাথায়ও পিস্তল ঠেকিয়ে স্বর্ণালংকার ও মালামাল লুট করে।

ডাকাতরা চলে গেলে আশুতোষ ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে কী পরিমান মালামাল লুট হয়েছে তা জানাতে পারেননি আশুতোষ।

খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) পরিমল বিশ্বাস জানান, খুন ও ডাকাতি বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।