মেইন ম্যেনু

গাজীপুরে স্কুলছাত্র হত্যার ১৫ বছর পর ছয়জনের ফাঁসি

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় স্কুলছাত্র হত্যামামলায় ছয়জনকে ফাঁসি এবং তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। হত্যার ১৫ বছর পর এই রায় ঘোষণা হলো বিচারিক আদালতে।

মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ বিচারক ফজলে এলাহি ভূইয়া এ আদেশ দেন। এসময় দণ্ডপ্রাপ্ত সবাই আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- কাপাসিয়া উপজেলার ঘাগটিয়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম, একই এলাকার আতিকুল ইসলাম, আতিক শেখ, সেলিম শেখ, নয়ন শেখ, আনোয়ার হোসেন শেখ। এছাড়া যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আনোয়ারা বেগম, আব্দুল মোতালেব ও শামসুদ্দিন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, কাপাসিয়া উপজেলার ঘাগটিয়া গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে সানাউল্লা সরকারকে পারিবারিক বিরোধ ও যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আনোয়ারা বেগমের মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে ২০০১ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আসাদুজ্জামান মামলা করেন। তদন্ত শেষে পুলিশ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দায়ের করেন। আদালত দীর্ঘ শুনানি ও উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে আদালত এ রায় দেয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন মকবুল হোসেন কাজল।

রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বাদীপক্ষ সন্তোষ জানিয়ে দ্রুত রায় কার্যকরের দাবি জানিয়েছে। তবে আসামি পক্ষের আইনজীবী মফিজুল্লাহ দাবি করেছেন তারা ন্যায় বিচার পাননি, এ ব্যাপারে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।