মেইন ম্যেনু

গাভাস্কারকে পাশে পেলেন ধোনি

চারদিকে সমালোচনা।তবে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির পাশে দাঁড়ালেন সুনীল গাভাস্কার৷ দক্ষিণ আফ্রিকার বিরু‌দ্ধে প্রথম একদিনের ম্যাচে দলকে জেতাতে না পারার জন্য ধোনিকে তীব্র সমালোচনায় বিদ্ধ করা হয়েছে৷ যা মোটেই পছন্দ করছেন না কিংবদন্তি ক্রিকেটার৷

বলেছেন, ‘দুর্ভাগ্য, ধোনিকে অন্যায় আক্রমণ করা হচ্ছে৷ ভারতীয় দলে শুধু একা ধোনি তো ব্যর্থ নয়৷ শিখর ধাওয়ান, সুরেশ রায়না, বিরাট কোহলি, স্টুয়ার্ট বিনিরাও সফল নয়৷ অথচ ওদের পারফরম্যান্স নিয়ে কেউ কোনও কথা বলছে না৷ এমনকী বোলারদের ফর্ম নিয়েও সবাই চুপ৷ অদ্ভুৎভাবে দলের ব্যর্থতার জন্য প্রত্যেকে ধোনিকেই আক্রমণ করে চলেছে৷ কেন করা হচ্ছে, আমার বোধগম্য হচ্ছে না৷ আমার তো মনে হয়, ধোনি এখনও ভারতীয় দলে তিন থেকে পাঁচ বছর অনায়াসে খেলতে পারে৷ ওকে বলির পাঁঠা করা একদমই ঠিক হচ্ছে না৷’

কিছুদিন আগেই ভারতের সাবেক অধিনায়ক মোহাহম্মদ আজহারউদ্দিন সমালোচনা করে বলেছিলেন, ধোনির ‘মিডাস টাচ’ আর কাজ করছে না৷ ধোনিকে যেভাবে দেখা যেত, সেভাবে আর পাওয়া যাচেছ না৷ এর উত্তরে সানি জানিয়েছেন, ‘সবাই মোটামুটি একটা বিষয়ে একমত, ধোনি অন্য জাতের ক্রিকেটার৷ তা হলে এই তাকে ফিরে আসার জন্য কিছু সময় তো দেওয়া হোক৷’

আরও জানিয়েছেন, তিনি যখন খেলা শুরু করেছিলেন, তখন ক্রিকেটারদের অবসরের বয়স মোটামুটি ৩৩-৩৪ বছর ছিল৷ কিন্ত্ত তা অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে৷ সানি নিজে অবসর নিয়েছেন ৩৭-৩৮ বছরে৷ শচীন অবসর নিয়েছেন ৪০-এ৷ গাভাস্কারের বক্তব্য, ‘চল্লিশ বছর পর্যন্ত যখন খেলা যায়, তখন ধোনিকে নিয়ে অযথা অধৈর্য হওয়াটা উচিত নয়৷ ও ঠিক ফিরে আসবে৷ প্রচুর ক্রিকেট বাকি রয়েছে ওর৷’