মেইন ম্যেনু

গাড়ি দুর্ঘটনায় পাকিস্তানি নারী ফুটবলারের মৃত্যু

শাহলিলা আহমাদজাই বালুচ। পাকিস্তান নারী ফুটবল দলের সদস্য। গত বুধবার করাচিতে এক গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হন তিনি। পাকিস্তানের এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে পরিবারের সদস্যরা এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তারা জানিয়েছেন, করাচির ডিএইচএ এলাকার ৮ নম্বর রোডে দুর্ঘটনায় আহমদজাই বালুচ বসা ছিলেন প্যাসেঞ্জার সিটে।

পরিবারের এক সদস্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এটা নির্মন এক সত্য যে, সে ইহলোক ত্যাগ করেছে। যে সময় গাড়িটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে, তখন সে পেছনে প্যাসেঞ্জার সিটেই বসা ছিল।’

২০ বছর বয়সী আহমাদজাই বালুচ ছিলেন পাকিস্তান নারী ফুটবল দলের অন্যতম সেরা একজন স্ট্রাইকার। ২০১৪ সালে ইসলামাদে অনুষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) ওমেন ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপেও অংশ নেন তিনি। পাকিস্তান নারী ফুটবল দল সর্বশেষ কোনো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের ওই আসরেই অংশ নিয়েছিল।

তার আগেই মালদ্বীপে স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথম পাকিস্তানি নারী ফুটবলার হিসেবে বিদেশের মাটিতে হ্যাটট্রিক করার গৌরব অর্জন করেন আহমদজাই বালুচ। ২০১৪ সালের সাফ ওমেন ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে ভুটানের বিপক্ষে ৪-১ গোলে জয়ী ম্যাচে পাকিস্তানের হয়েও গোল করেছিলে তিনি।

ঘরোয়া ফুটবলে ২০ বছর বয়সী এই নারী ফুটবলার খেলতেন বেলুচিস্তান ইউনাইটেডের হয়ে। ফুটবল পাকিস্তান ডটকম তাদের ফেসবুক পেজে লিখেছে, ‘তিনি পাকিস্তানকে প্রতিনিধিত্ব করতেন এবং অনেক উঠতি তরুণীর রোল মডেল ছিলেন। তার এই অকাল মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। তার পরিবারের সদস্যদের প্রতিও আমাদের সমবেদনা।’

শুধু ফুটবল পাকিস্তান ডটকমই নয়, শাহলিয়া আহমদজাই বালুচের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে পাকিস্তানজুড়ে।