মেইন ম্যেনু

গুগল আর্থ-এর চমকপ্রদ ৬ তথ্য

গুগলের অন্যতম জনপ্রিয় সেবা হিসেবে পরিচিত, গুগল আর্থ। এ সেবা ব্যবহার করে বিশ্বের বিভিন্ন স্থান দেখার সুযোগ পাওয়া যায় মুহূর্তেই। বিনা মূল্যে এ সেবাটি ব্যবহার করা যায়।

জেনে নিন গুগল আর্থ সম্পর্কিত চমকপ্রদ কিছু তথ্য।

* গুগল আর্থ সেবাটির আসল নাম ‘আর্থ ভিউয়ার’। একে তৈরি করেছিল কিহোল ইনকর্পোরেটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান, যার আংশিক ব্যয়ভার বহন করত সিআইএ। ২০০৪ সালে কিহোল ইনকর্পোরেট প্রতিষ্ঠানটি কিনে নেয় গুগল।

* ইরানের সবচেয়ে বড় বিমানবন্দরের ভবনের ছাদে ইহুদের ধর্মীয় চিহ্ন স্টার অব ডেভিড আঁকা রয়েছে। ৩০ বছর পর্যন্ত তা বিদ্যমান ছিল। ২০১০ সালে গুগল আর্থে মাধ্যমে এ বিষয়টি উন্মুক্ত হওয়ার ইরান সরকার তা মুছে ফেলে। ১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামিক শাসন ব্যবস্থার অভ্যুথানের আগে ইসরায়েলের ইঞ্জিনিয়াররা ইরানের রাজধানী তেহরানের বিমানবন্দরের ওই ভবনটি নির্মাণ করেছিল।

* বাহরাইন সরকার গুগল আর্থ নিষিদ্ধ করেছিল কেবলমাত্র এ কারণেই যে, এর মাধ্যমে সে দেশের রাজার বৈভব বড় বেশি প্রকাশ পেয়ে যাচ্ছিল। কারণ, রাজপ্রাসাদের পাশেই শিয়া ধর্মাবলম্বী গরিব গ্রামগুলো প্রকট হয়ে দেখা দিচ্ছিল।

* অ্যাঞ্জেলা মিকোল নামের জনৈকা প্রত্নতত্ত্ববিদ স্রেফ গুগল আর্থ ব্যবহার করেই মিশরের কিছু হারিয়ে যাওয়া পিরামিড আবিষ্কার করে ফেলেছেন।

* ব্রিটেনের ওয়েস্ট ল্যাঙ্কাশায়ারে আর্গলেট নামে একটি শহরকে দেখায় গুগল আর্থ। বাস্তবে শহরটির অস্তিত্বই নেই।

* গুগল আর্থ-এর ‘হিস্টোরিক ইমেজারি’ ব্যবহার করে ৯/ ১১-র সন্ত্রাসী হামলা দেখা যায়।