মেইন ম্যেনু

‘গুলশানে হামলা শেখ হাসিনার সরকার উৎখাতের জন্য’

শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাত করার জন্য রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোঁরায় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

রাজধানীর হেয়ার রোডের বাসভবনে বুধবার (৬ জুন) দুপুরে চলতি ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ সন্ত্রাসী হামলা ভারত, জাপান, ইতালি বা জাপানের ওপর হামলা নয়। এটা শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাত করার জন্য ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা। ষড়যন্ত্রকারীদের উদ্দেশ্য সরকারকে কোণঠাসা করা।’

এ ধরনের হত্যাকাণ্ড রাষ্ট্র, সমাজ, সভ্যতা ও ধর্মের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার নামান্তর বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এক সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জাসদ একাংশের সভাপতি ইনু বলেন, ‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। পুরো সমাজ জঙ্গিবাদের বিপক্ষে। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো জঙ্গিবাদের বিপক্ষে। তাই দেশের ৬০ শতাংশেরও বেশি তরুণের মধ্যে গুটিকয়েক বিপথগামী তরুণের জন্য পুরো দেশ সংকটে রয়েছে বলে মনে করি না।’

গুলশানের হামলাকে বাংলাদেশের জন্য সাময়িক ধাক্কা হিসেবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘গুপ্তহত্যা থামানোর সক্ষমতা সরকারের আছে। সরকার জঙ্গি দমনে আন্তরিক। দেশের অর্থনীতির চাকাকে থামানোর ক্ষমতা জঙ্গিদের নেই।’

জঙ্গিদের যে কোনো হামলা মোকাবেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

বিএনপির নানা বক্তব্যের মাধ্যমে জঙ্গিরা সুবিধা পাচ্ছে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া জঙ্গি দমন নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি বন্ধ করতে বলেছেন। কিন্তু সরকার এটি নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি করছে না। নিজের গায়ে নিজেই কাদা লাগিয়েছেন খালেদা জিয়া।’

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘খালেদা জিয়া জঙ্গি ইস্যুতে জাতীয় সংলাপের কথা বলছেন। কিন্তু জামায়াত ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে সঙ্গে নিয়ে জঙ্গি দমনের সংলাপ হতে পারে না। জঙ্গীদের সঙ্গে যাদের (বিএনপি) সম্পর্ক তাদের নিয়ে কোনো জঙ্গী দমনের কাজে এগোনো সম্ভব নয়।’

জঙ্গি উৎপাত বন্ধ করতে আন্তর্জাতিক শক্তিকে নিয়ে একসঙ্গে কাজ করা হবে বলেও জানান হাসানুল হক ইনু।