মেইন ম্যেনু

গুলশান হামলার ‘মাস্টার মাইন্ড’ শনাক্ত

রাজধানীর গুলশান হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে হামলার মাস্টার মাইন্ড শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ডিএমপির গণমাধ্যম শাখায় সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ তথ্য জানান তিনি।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড শনাক্ত হয়েছে। তবে তিনি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের না।’

মাস্টার মাইন্ড হিসেবে হাসনাত করিমকে সন্দেহ করা হচ্ছে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা এখন তদন্তের প্রাথমিক পর্যায়ে আছি। এখনই হাসনাত করিমের বিষয়টি নিশ্চিত করে কিছু বলা সম্ভব না।’

হাসনাত করিম এখন কোথায় জানতে চাইলে ডিএমপির এই অতিরিক্ত কমিশনার বলেন, ‘আমরা তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে পরিবারের হেফাজতে দিয়ে দিয়েছি।’

উল্লেখ্য, গত ১ জুলাই রাতে গুলশানের কূটনীতিক পাড়ার অভিজাত এই রেস্টুরেন্টে সন্ত্রাসীরা সশস্ত্র হামলা চালিয়ে ১৭ বিদেশিসহ ২০ জিম্মিকে হত্যা করে। সন্ত্রাসীদের ছোড়া গ্রেনেডে প্রাণ যায় ডিবির এসি রবিউল ইসলাম ও বনানী থানার ওসি সালাউদ্দিন খানের।

পরদিন শনিবার (২ জুলাই) সকালে নিরাপত্তা বাহিনী যৌথ অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে ১৩ জিম্মিকে জীবিত উদ্ধার করে এবং ৬ জঙ্গির মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এ ঘটনার ঠিক সাতদিনের মাথায় ৭ জুলাই সকাল সোয়া ৯টার দিকে শোলাকিয়ায় ঈদ জামাতের মাঠের কাছে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যদের ওপর বোমা হামলা চালায় জঙ্গিরা। এ ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য, গৃহবধূ ঝর্ণা রানী ও সন্ত্রাসী আবির নিহত হন। এছাড়া আহত হন আরো অন্তত ৮ জন। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ৬ পুলিশ সদস্যকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) পাঠানো হয়।