মেইন ম্যেনু

গুলশান হামলায় জড়িত কে এই ‘রাজীব গান্ধী’

গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলার মূল হোতাদের মধ্যে এতদিন তামিম চৌধুরী, মেজর জিয়া, মারজানকে শনাক্তের কথা বলেছিল পুলিশ। তবে সোমবার এ ঘটনায় জড়িত আরেকজনের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, গুলশান হামলায় জড়িতদের মধ্যে রাজীব গান্ধী নামে একজনের নাম পাওয়া গেছে।

কে এই রাজীব গান্ধী? গোয়েন্দা সূত্র জানায়, তার কয়েকটি নাম পাওয়া গেছে। সেগুলো হচ্ছে রাজীব, সুবাশ গান্ধী, রাজীব গান্ধী ও গান্ধী।

পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, তিনি উত্তরাঞ্চলের জঙ্গি কমান্ডার হিসেবে কাজ করতেন। গুলশান হামলা সংগঠনের জন্য অভিজ্ঞ জঙ্গির প্রয়োজন ছিল। রাজীব গান্ধী গুলশানের জন্য ২ জন ও শোলাকিয়ার জন্য ১ জন জঙ্গি সংগ্রহ করেন।

তার বর্তমান অবস্থা জানতে চাইলে কাউন্টার টেররিজম প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে রাজীব গান্ধী দেশের ভেতরে রয়েছে। উত্তরবঙ্গের কোথাও সে আত্মগোপনে থাকতে পারে।’

গান্ধীর সম্পর্কে তেমন কোন নাম পায়নি গোয়েন্দা সূত্র। তার সাংগঠনিক নাম পেলেও প্রকৃত নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এর আগে গত জুলাই মাসের ১ তারিখ গুলশানের রেস্টুরেন্টে জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে। এতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ ২২ জন নিহত হয়। সেনাবাহিনীর অপারেশন থান্ডারবোল্টে হামলাকারী ৬ জঙ্গিও নিহত হয়। গুলশানের হামলার ৭ দিনের মাথায় কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদ জামায়াতের পাশে হামলা হয়। এতে ২ পুলিশ ও ২ জঙ্গি নিহত হয়।

এদিকে গুলশান হামলার ৫৭ দিন পর অন্যতম মাস্টারমাইন্ড তামিম আহমেদ চৌধুরী পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।