মেইন ম্যেনু

গুলশান হামলা: রেস্তোরাঁর ছাদে ন্যাড়া মাথার লোকটি কে?

রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশের পর নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে। ভিডিও ফুটেজে একজনের সন্দেহজনক গতিবিধি কিছু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে।

ভিডিও ফুটেজে গুলশানের ওই রেস্তোরাঁর বেশকিছু জায়গায় দেখা মিলেছে এক ন্যাড়া মাথার লোকের। এই ব্যক্তি জিম্মি নাকি হামলাকারীদের একজন তা পরিষ্কার নয়।

একটি ছবিতে ন্যাড়া মাথার ওই ব্যক্তিকে ছাদের ওপর ধূমপান করতে দেখা যায়। এ সময় তার পেছনে দুজন বন্দুকধারী সন্ত্রাসীকে দেখা যায়। আরেকটি ফুটেজে তাকেই দেখা যায় ক্যাফের দরজার ভেতরে দাঁড়িয়ে থাকতে।

তখন ভেতরে অস্পষ্টভাবে কাঁচের ভেতর দিয়ে দেখা যায়, লোকজন মাথা নিচু করে আত্মসমর্পণের ভঙ্গিতে বসে আছে। কিন্তু ন্যাড়া মাথার লোকটি হাঁটছে এবং কথা বলছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ নিয়ে ব্যাপক লেখালেখি হচ্ছে। এর মধ্যে কয়েকটি পোস্টে ন্যাড়া মাথার লোকটির বিষয়ে বলা হচ্ছে, তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক। কিন্তু এই বিষয়টি নিশ্চিত করা যায়নি।

download

এ ঘটনার তদন্তকারী দলের সদস্য ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর এক সদস্যের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘আমরা এখনো এ বিষয়ে নিশ্চিত নই।’

উল্লেখ্য, শুক্রবার রাত পৌনে ৯টার দিকে একদল অস্ত্রধারী যুবক `আল্লাহু আকবর` বলে স্লোগান দিতে দিতে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় হামলা করে। এই ঘটনায় নিহত হয়েছেন বনানী থানার ওসি সালাহ উদ্দিন ও পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) সহকারী কমিশনার রবিউল। পুলিশ সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

শনিবার সকালে উদ্ধার অভিযান শেষে দুপুরে ২০ জন বিদেশির জবাই করা লাশ উদ্ধারের কথা জানায় আইএসপিআর। ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। এই অভিযানে ৬ সন্ত্রাসী নিহত হয়। একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রেস্টুরেন্ট থেকে উদ্ধারপ্রাপ্তদের মধ্যে এরকম চেহারার কেউ ছিল কি না তা জানা যায়নি । এ ছাড়া নিহত জিম্মি ও সন্ত্রাসীদের যে ছবি প্রকাশিত হয়েছে তাতে ন্যাড়া মাথার এরকম কারো ছবি দেখা যায়নি।