মেইন ম্যেনু

গুলশান হামলা: হত্যার আগে ইশরাতকে যে প্রশ্নগুলো করেছিল জঙ্গিরা

শুক্রবার সন্ধ্যায় গুলশানের হলি আর্টিসান বেকারিতে কফি খেতে গিয়েছিলেন ইশরাত আখন্দ। সেখানেই সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি হন তিনি। এরপরের বারো ঘণ্টার মতো সময়ের বিভীষিকার পর জানা যায় ইশরাতকে হত্যা করা হয়েছে।

সন্ত্রাসীদের হাত থেকে জীবন নিয়ে পালানো গুলশানের হলি আর্টিসানের এক কর্মী খুব কাছ থেকে দেখেছিলেন ইশরাতের জীবনের শেষ মুহূর্তগুলো। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই কর্মী বর্ণনা করেছেন সেই সময়ে যা ঘটেছিল।

জিম্মি থাকা অবস্থায় একসময় ইশরাতের দিকে এগিয়ে আসে সন্ত্রাসীরা। এক সন্ত্রাসী তাকে প্রশ্ন করেন, ‘তোমার মাথায় হিজাব নেই কেন?’ উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি বাংলাদেশেরই নাগরিক। কোনোদিন হিজাব পরিনি।’

জবাব শুনে তার নাম জানতে চায় সন্ত্রাসীরা। ইশরাত নিজের নাম বলেন। তা শুনে সন্ত্রাসীদের একজন বলেন, ‘ও বাঁচার জন্য ধর্মের নাম নিচ্ছে। মুসলমান হলে হিজাব পরেনি কেন? মাথায় কাপড় নেই কেন?’

দুই সন্ত্রাসীর মধ্যে এ বিষয়ে মৃদু তর্ক চলার মধ্যেই আরেক সন্ত্রাসী সেখানে এসে বলেন, ‘আমাদের হাতে কিন্তু বেশি সময় নেই।’

এরপরই ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করা হয় ইশরাতকে।

হলি আর্টিসান বেকারিতে সন্ত্রাসীদের হামলায় হতভাগ্য অনেকের সাথে জেডএক্সওয়াই ইন্টারন্যাশনালের মানবসম্পদ বিভাগের পরিচালক ইশরাত আখন্দের নিহত হওয়ার বিষয়টি শনিবার নিশ্চিত করেন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রাশিদুল হাসান। সূত্র: আনন্দবাজার