মেইন ম্যেনু

গুলি ছুড়ে উল্লাস : ক্ষমা পেলেন ভেড়ামারার পৌর মেয়র ছানা

ক্ষমা চেয়ে হলফনামা দিয়ে পার পেলেন ভাতিজির বিয়ের অনুষ্ঠানে শটগানের গুলি ছুড়ে উল্লাস করা ভেড়ামারা পৌর মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা। ভুল স্বীকার করে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুর রহমান। এর আগে ৩০০ টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে ক্ষমাপ্রার্থনা করে একটি হলফনামা জমা দেন আলোচিত মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুর রহমান জানান, সরকারি বিধি অমান্য করে ভাতিজির বিয়েতে নিজের শটগান থেকে গুলি ছুড়ে আনন্দ উদযাপন ও পিস্তল প্রদর্শনের ঘটনায় ভেড়ামারা পৌর মেয়রকে এক সপ্তাহের সময় দিয়ে শোকজ করা হয়েছিল। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যেই জেলা প্রশাসকের কাছে সশরীরে গিয়ে লিখিত জবাব দেন পৌর মেয়র।

মঙ্গলবার বিকেলে তিনি ৩০০ টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে একটি হলফনামা জমা দিয়েছেন। হলফনামায় তিনি এ ধরনের ভুল আর হবে না বলে অঙ্গীকার করেন এবং শেষবারের মতো ক্ষমাপ্রার্থনা করেন। ভুল স্বীকার করে ক্ষমাপ্রার্থনা করায় তাকে শেষবারের মতো একবার সুযোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১০ জানুয়ারি রাতে ভাতিজির বিয়ের অনুষ্ঠানে শটগানের গুলি ছুড়ে উল্লাস করেন ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র শামীমুল ইসলাম ছানা। তিনি সেখানে পিস্তলও প্রদর্শন করেন। এমন দৃশ্য ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।