মেইন ম্যেনু

গৃহবধূ হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার নাঙ্গুলী গ্রামে গৃহবধূ লুৎফর নাহার হত্যা মামলার প্রধান আসামি আলতাফ মল্লিককে আজ শনিবার সকালে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। উপজেলার মুখিয়া বাজার থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে।
এদিকে হত্যাকান্ডের ঘটনায় শুক্রবার রাতে নিহতের স্বামী ফারুক হোসেন বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে নলছিটি থানায় মামলা করেন।
পুলিশ জানায়, নলছিটির নাঙ্গুলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী রিপা আক্তার হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী গৃহবধূ লুৎফর নাহার বেগমকে (৩২) বৃহস্পতিবার রাতে শ্বাসরোধে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার বেলা ১১টায় পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের বাড়ির পাশের ধানক্ষেত থেকে কাপড় দিয়ে মুখ বাঁধা অবস্থায় তাঁর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
মামলার বাদী ফারুক হোসেন অভিযোগ করেন, স্ত্রী লুৎফর নাহারের বড় ভাইয়ের মেয়ে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী রিপা আক্তারকে ২০১২ সালের ১১ মার্চ রাতে একইভাবে হত্যা করে প্রতিবেশী কয়েকজন যুবক। এই মামলার প্রধান সাক্ষী ছিলেন লুৎফর নাহার। কিছুদিনের মধ্যে আদালতে মামলাটির সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হবে। তাই মামলার সাক্ষীকে হত্যা করেছে আসামিরা।
নলছিটি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবুল হোসেন বলেন, লুৎফর নাহারকে শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ ধানক্ষেতে ফেলে রাখার ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলার একজন আসামিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে।
নিহতের ভাই সোনা মল্লিক বলেন, ‘বড় ভাইয়ের মেয়ে রিপাকে যারা হত্যা করেছে, তারাই আমার বোন লুৎফর নাহারকে হত্যা করেছে। হত্যার ধরন ও ঘটনাস্থল একই।’ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন তিনি।