মেইন ম্যেনু

গোপন ভাইরাসের আক্রমণ: ঝুঁকিতে বিশ্বের বৃহত্তম প্রবাল প্রাচীর

পর্যটনের জন্য আকর্ষণীয় প্রাকৃতিক স্থানগুলোর মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার গ্রেট বেরিয়ার রিফ অন্যতম। প্রশান্ত মহাসাগর ও ভারত মহাসাগরের মাঝখানে অস্ট্রেলিয়ার উপকূলীয় শহর কুইন্সল্যান্ডের কোরাল সাগরে অবস্থিত পৃথিবীর বৃহত্তম এই প্রবাল প্রাচীরটি।

প্রতি বছর সারা পৃথিবী থেকে ২০ লাখেরও বেশি পর্যটকের আগমন ঘটে গ্রেট বেরিয়ার রিফে। ১৯৮১ সালে এই প্রবাল প্রাচীরটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে ইউনেসকো। বিভিন্ন কারণে গ্রেট বেরিয়ার রিফ ঝুঁকির মুখে বলে পরিবেশবাদীরা বিভিন্ন সময়ই দাবি করে আসছে। সম্প্রতি এই প্রবাল প্রাচীরটির ঝুঁকির আরো একটি তথ্য উঠে এসেছে।

তবে এবারের ঝুঁকিটা একটু ব্যতিক্রম। গ্রেট বেরিয়ার রিফ ধ্বংসের জন্য হামলা করছে গোপন শত্রুরা। অস্ট্রেলীয় গবেষকরা জানিয়েছেন, এক ধরনের গোপন ভাইরাসের কারণে হুমকির মুখে পড়েছে গ্রেট বেরিয়ার রিফের অস্তিত্ব। দ্বীপের প্রয়োজনীয় প্রবালগুলো ‘সিমবায়োডিনিয়াম’ নামে পরিচিত ‘ফটোসিনথেটিক’ ধরনের শেওলার সাথে মিলেমিশে বাস করে। ফটোসিনথেটিক প্রক্রিয়া ব্যবহার করে গাছেরা সূর্য থেকে প্রাপ্ত আলোকশক্তিকে রাসায়নিক শক্তিতে পরিণত করে।

এককোষী সিমবায়োডিনিয়াম প্রবালের টিস্যুর ভেতর বাস করে এবং প্রবালের প্রয়োজনীয় পুষ্টির ৯০ শতাংশই জোগান দেয়। সিমবায়োডিনিয়াম এবং প্রবালের এই সম্পর্কের ভিত্তিতেই বেঁচে থাকে গ্রেট বেরিয়ার রিফের প্রবালগুলো। তবে বর্তমানে যে গোপন ভাইরাসের আক্রমণের কথা বলা হচ্ছে তাতে এদের মধ্যকার এই সম্পর্ক ভেঙে পড়ে।

গোপন এই ভাইরাসগুলো ফটোসিথেটিক প্রক্রিয়া বন্ধ করে দেয়। এতে প্রবালগুলো নিঃশেষ হয়ে যায় এবং সাগরে ধুয়ে যায়। অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট (এআইএমএস) আলাদা তিন ধরনের ভাইরাসের সন্ধান পেয়েছেন। এরা সিমবায়োডিনিয়ামকে আক্রমণ করে ধ্বংসে করে দেয়। গ্রেট বেরিয়ার রিফ থেকে সংগৃহীত বিভিন্ন ধরনের শেওলার নমুনা গবেষণাগারে পরীক্ষা করে এর সন্ধান পেয়েছেন তারা।

এআইএমএস’র বিজ্ঞানী ড. কারেন ওয়েনবার্গ বলেন, ‘চলমান গবেষণা অনুসারে আমাদের কাছে যে তথ্য আছে তাতে মনে হচ্ছে ভাইরাসের আক্রমণ এখনো চলছে। সিমবায়োডিনিয়ামরা আসলেই আক্রমণের শিকার। আলাদা তিন ধরনের ভাইরাস ব্যাপকভাবে এ আক্রমণ চালাচ্ছে।’

অস্ট্রেলিয়াতে ২০১৬ সালের মহাসাগর বিজ্ঞান সম্মেলনে নিজের গবেষণা প্রতিবেদনটি উপস্থাপন করবেন ওয়েনবার্গ। ধারণা করা হচ্ছে, প্রবাল প্রাচীরে গোপন ভাইরাসের আক্রমণের প্রভাব বিবেচনায় তার এই গবেষণা নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার উপকূলীয় শহর কুইন্সল্যান্ডের কোরাল সাগরের গ্রেট ব্যারিয়ার রিফ ২ হাজার ৯০০টিরও বেশি প্রবাল প্রাচীর এবং কয়েকশ দ্বীপ নিয়ে গঠিত। লাখ লাখ বছর ধরে অগণিত জীবন্ত প্রাণী একত্র হয়ে বিশাল প্রবাল প্রাচীর গঠিত হয়েছে যা পৃথিবীর সবচাইতে বিচিত্র বাস্তুতন্ত্রের একটি এবং অস্ট্রেলিয়ার দর্শনীয় স্থানগুলোর অন্যতম।