মেইন ম্যেনু

গোলাপগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে একটি দোকান পুড়ে ভষ্মিভূত

আজিজ খান, গোলাপগঞ্জ (সিলেট)প্রতিনিধি : গোলাপগঞ্জের কোনাচর বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে একটি দোকান পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। এতে প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রোববার গভীর রাতে এ অগ্নিকান্ডে সূত্রপাত হলে দোকানের সবকিছু জ্বলে-পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

তবে দোকানের মালিকের দাবী ঈর্শানিত হয়ে দূষ্কৃতিকারীরা পরিকল্পিত ভাবে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন লক্ষ্মীপাশা ইউপি’র নব-নির্বাচি চেয়ারম্যান কবির আহমদ মুশন, গোলাপগঞ্জ মডেল থানার একদল পুলিশসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে।

প্রাপ্ত সংবাদে জানা যায়, গোলাপগঞ্জ উপজেলা লক্ষ্মীপাশা ইউনিয়নের হেতিমগঞ্জ দেওয়ান রোডের কোনাচর বাজারে অবস্থিত মঞ্জুর ভেরাটিজ ষ্টোর মালিক, নব-নির্বাচিত ইউপি সদস্য ইসমাঈল আলী প্রতিদিনের ন্যায় বেচাকেনা শেষে রোববার সাড়ে ১২টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যান।

আনুমানিক রাত ১টার দিকে তিনি খবর পান দোকানে আগুন লেগেছে। আগুনের লেলিহান শিখায় মুহূর্তে পুরো দোকানে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজনের প্রানপন চেষ্টায় পার্শ্ববর্তী দু’টি দোকান অগ্নিকান্ডের হাত থেকে রক্ষা করা গেলেও মঞ্জুর ভেরাটিজ ষ্টোর পুরোপুরি আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

এ ঘটনায় প্রায় ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা যায়। পরদিন সেমাবার পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের লোকজনকে খবর দেয়া হলে, তাদের বক্তব্যে বিদ্যুতের সট-সার্কিট থেকে আগুনে সূত্রপাত হয়নি বলে জানান। দোকানের মালিক, বর্তমান ইউপি সদস্য ইসমাঈল আলীর দাবী করে বলেন, আমার বড় ধরনের ক্ষতি করার লক্ষে দূষ্কৃতিকারীরা এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন লক্ষ্মীপাশা ইউপি’র নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান কবির আহমদ মুশন, ইউপি সদস্য জামিল আহমদ, আব্দুল মন্নান, গোলাপগঞ্জ মডেল থানার একদল পুলিশসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এ ব্যাপারে দোকানের মালিক ইসমাঈল আলী গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।