মেইন ম্যেনু

গোসল ছাড়া টানা ১২ বছর পার করলেন যে বালিকা!

পানি ছাড়া মানুষ বাঁচে নাকি! কিন্তু তাই বাস্তব হলো নিকি হার্স্টের জীবনে। নিকি ইংল্যান্ডের বাসিন্দা। জাতিতে ব্রিটিশ। গত ১২ বছর ধরে স্নান করা হয়নি তার।

কারণ, পানি সহ্য হয় না নিকির। ওটা কোনোভাবেই সহজ নয় তার কাছে। শরীরে এক ফোঁটা পানি লাগলেই ভয়ঙ্কর অসুস্থ হয়ে পড়েন এই বালিকা। পানি লাগলেই গায়ে অসম্ভব ব্যাথা হয় তার। বৃষ্টিতেও বাইরে বের হওয়া তার জন্য কষ্টদায়ক। তাই গত ১২ বছর ধরেই ডাক্তার বাঁধা তার। বলা যায়, বেঁচে আছেন তাদেরই বিশেষ সেবা ও শুশ্রুষায়।

মেয়ে যখন, বাড়ির কাজও তো তাকে কিছু করতে হয়। যাতে পানি হাতে লাগার সম্ভাবনা। কিন্তু সেই ধরনের কাজগুলো করার সময় হাতে গ্লাভস পরে নেন এবং খুবই সতর্ক থাকেন নিকি।

চিকিৎসকরা বলছেন, ৫০ লক্ষ মানুষের মধ্যে এমন ঘটনা কেবল একজনের হতে পারে। পানি খাওয়াটাও বিপজ্জনক হয়ে গিয়েছে নিকির। বেশিরভাগ সময়ই ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে শরীরে পানি দেওয়া হয়। প্রতি মাসে নিকির রক্তের প্লাজমা বদলাতে হয়। না, গোটা ইংল্যান্ডে আর একজনের ক্ষেত্রেও এমনটা করতে হয় না।

তাহলে কি নিকি সুস্থ হবেনই না! ডাক্তাররা বলছেন, না সুস্থ হবেন না। কিন্তু এ রকমভাবেই নিয়মিত চিকিৎসা করে যেতে থাকলে, বাঁচতে অসুবিধা নেই তার।

তথ্যসূত্র : জিনিউজ, আইটিভি নিউজ।