মেইন ম্যেনু

গোয়াতে বৈঠক হবে হাসিনা-মোদীর

রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় ভারতের পর্যটন রাজ্য গোয়াতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গোয়ার নেভাল এয়ারপোর্ট থেকে সোজা সম্মেলনস্থল লীলা প্যালেস হোটেলে যাবেন তিনি। সফরকালে ওই হোটেলেই অবস্থান করবেন প্রধানমন্ত্রী।

বিমসটেক (বে অব বেঙ্গল ইনিশিয়েটিভ ফর মাল্টিসেক্টরাল টেকনিক্যাল এন্ড ইকোনোমিক কো-অপারেশন)-এর সদস্য দেশগুলোর অন্য সরকার প্রধানরাও এই হোটেলে থাকবেন।

রোববার বিকেল পৌনে ৪টা থেকে শুরু হবে বিমসটেক সামিট। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শীর্ষ নেতাদের স্বাগত জানাবেন। সরকার প্রধানরা এখানে সংক্ষিপ্ত ভাষন দেবেন। সাড়ে ৪টায় শেষ হবে উদ্বোধনী পর্ব।

ব্রিকস-বিমসটেক আউটরিচ সামিট লীলা হোটেলে শুরু হবে রোববার বিকেল পৌনে ৫টায়। বব্রিকস-এর পাঁচ শীর্ষ নেতা চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট মিশেল টেমের ও দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যকব জুমা সম্মেলনে যোগ দেবেন বিমসটেক-এর শীর্ষ নেতাদের সাথে।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট শিরি সেনা, মিয়ানমারের অং সান সূচী, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দহল, থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচা, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী শেরিং তোবগে এবং ব্রিকস-এর শীর্ষ নেতারা আউটরিচ সম্মেলন ভাষণ দেবেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত বৈঠক হবে স্থানীয় সময় রাত সাড়ে নয়টায়। নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী লীলা হোটেলে আধা ঘণ্টা বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশের কূটনীতিকদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, মোদীর সাথে তিস্তা নদীর পানি বন্টন ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। কিন্তু নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কূটনীতিক জানান, এ বৈঠকে ফল আসার সম্ভাবনা কম। কারণ গত এক বছরে কেন্দ্রীয় সরকারের সাথে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর কোনো আলোচনা-ই হয়নি। ভারতের অভ্যন্তরে এ বিষয়ে অগ্রগতি না হলে তিস্তা নিয়ে কোন মীমাংসা হবার সম্ভাবনা নেই।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকের কথা শোনা গেলেও এর কোনো সূচি নির্ধারিত হয় নাই। তবে দুই পক্ষ সাইড লাইনে যে কোনো সময় বসতে পারে বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবার ভোরে ৬টায় ঢাকার উদ্দেশে গোয়া ত্যাগ করবেন। এদিকে শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ব্যস্ত সময় পার করছেন। সকালে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে বৈঠক করেছেন তিনি। দুপুরে দুই দেশের মধ্যে বেশকিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

ব্রিকস-বিমসটেক আউটরিচ সামিট উপলক্ষে গোয়াকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। প্রধান প্রধান সড়ক শীর্ষ নেতাদের ছবি সম্বলিত ফেস্টুন টানানো হয়েছে। নিরাপত্তার চাদরে মোড়া হয়েছে পুরো গোয়াকে। তবে আশঙ্কা থাকলেও বিপুল পরিমাণ পর্যটকদের বিনোদনে এই নিরাপত্তা কোনো প্রভাব ফেলেনি।