মেইন ম্যেনু

গ্রাহকদের কাছে ক্ষমা চাইলো এয়ারটেল

৩১ মে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম পুনঃনিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে। এরপরের দিন গতকাল ঢাকা ও এর আশেপাশের এলাকার এয়ারটেল ব্যবহারকারীদের নিবন্ধনকৃত সিম বন্ধ হয়ে যায়। এতে অপারেটরটির ব্যবহারকারীর বিক্ষোভ করে। এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ কর ক্ষমা চেয়েছে এয়ারটেল বাংলাদেশ।

এয়ারটেল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, গতকাল যান্ত্রিক গোলযোগের কারনে ঢাকা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় এয়ারটেলের ২ জি নেটওয়ার্কের আওতায় সাময়িক ভাবে নেটওয়ার্ক বিভ্রাট ঘটে। এজন্য এয়ারটেলের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনকারীদের সিম কিছু কিছু জায়গায় সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়। সন্ধ্যার মধ্যে এই সমস্যার সমাধান করা হয়েছে বলে এয়ারটেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে এয়ারটেলের সি ই ও পি ডি শর্মা বলেন ‘এই ঘটনায় আমাদের সম্মানিত গ্রাহকরা যে অসুবিধার সম্মুখীন হয়েছেন তার জন্য আমি গ্রাহকদের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাইছি এবং তাঁদের সহমর্মিতা ও ধৈর্যের জন্য আমার কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

তিনি আরও বলেন, গ্রাহকরা গতকাল যে অভাবনীয় অসুবিধার সম্মুখীন হয়েছেন তার সাথে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বায়ো মেট্রিক পুনঃনিবন্ধন প্রক্রিয়ার বার হয়ে যাওয়া আন-রেজিস্টার্ড গ্রাহকের কোন সম্পর্ক নেই। আমাদের গ্রাহকদের বিশ্বমানের ভয়েস ও ডাটা সেবা দিতে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অধিকাংশ এয়ারটেল গ্রাহকই তাদের সিম পুনঃনিবন্ধন করে ফেলেছেন। এয়ারটেল এই স্বতঃস্ফূর্ত সহযোগিতার জন্য গ্রাহকদের কাছে কৃতজ্ঞ। যারা এখন পুনঃনিবন্ধন করেননি তারা যেকোনো এয়ারটেল রেজিস্ট্রেশন পয়েন্ট এ এসে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম পুনঃনিবন্ধন করে ফেলতে পারবেন।



« (পূর্বের সংবাদ)