মেইন ম্যেনু

গ্রিক পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রীর সংস্কার প্রস্তাব পাস

শুক্রবার রাতে গ্রিসের অর্থনৈতিক সংস্কারের ওপর আনীত একটি প্যকেজ প্রস্তাব অনুমোদন করেছে গ্রিক পার্লামেন্ট। গ্রিসের ভেঙে পড়া অর্থনীতিকে টিকিয়ে রাখতে এবং ইউরোপীয় অর্থ দাতাদের সহায়তা পাওয়ার আশায় অর্থনৈতিক সংস্কারের ওপর পার্লামেন্ট ওই প্রস্তাব এনেছিল সিপ্রাস সরকার ।

ব্যাপক বাক বিতণ্ডার পর শুক্রবার গভীর রাতে প্রধানমন্ত্রী অলেক্সিস সিপ্রাসের আনা প্রস্তাবটিকে অনুমোদন করেছে গ্রিক সাংসদরা। প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে ২৫১ জন মন্ত্রী। তবে তার নিজের দলের কিছু এমপি প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন এবং ভোট এড়াতে সংসদে অনুপস্থিত ছিলেন আরো কয়েকজন সাংসদ। পার্লামেন্ট ভোটাভুটির আগে সিপ্রাস অবশ্য স্বীকার করেছেন যে, এ প্যাকেজের কিছু উপাদান তার দলের মিতব্যয়িতা বিরোধী প্রতিশ্রুতির সঙ্গে খাপ খায় না।

সংসদে পাশ হওয়া প্রস্তাবটি শনিবার যাচাই বাছাই করে দেখবেন ইউরো জোনের অর্থমন্ত্রীরা। এরপর রোববার ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতাদের যে বৈঠকে হওয়ার কথা রয়েছে, সেখানে গ্রিসের এই প্যাকেজ প্রস্তাবের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ইইউ সূত্র জানিয়েছে, গ্রিসের ঋণদাতা গোষ্ঠী যেমন ইউরোপীয় কমিশন, ইউরোপীয় সেন্ট্রাল ব্যাংক এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আশা করছে গ্রিসের নতুন প্রস্তাবটি ইতিবাচক হবে।

এর আগে বেলআইটের ওপর গত রবিবারে যে গণভোট হয়েছিল সেখানে কৃচ্ছতাসাধনের বিষয়ে অসম্মতি জানিয়ে না ভোট দিয়েছিল গ্রিসের জনগণ। কিন্তু তাদের এই নতুন প্রস্তাবে কর বৃদ্ধি, বেসরকারিকরণ এবং খরচ কমানোর মতন বিষয়গুলো রয়েছে।

দেশটির কাঁধে যে বিপুল ঋণের বোঝা চেপেছে তা পরিশোধে করতে নতুন করে আরো তিন বছরের জন্য একটি বেইল আউট চাচ্ছে গ্রিস।