মেইন ম্যেনু

গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়ার ফুটবলে জেলা চ্যাম্পিয়ন কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল

সাতক্ষীরার কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট মডেল হাইস্কুল ৪৪ তম গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ফুটবলে জেলায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে। রবিবার বিকালে সাতক্ষীরা জেলা স্টেডিয়ামে এ ফুটবল খেলায় অংশ গ্রহণ করে কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট মডেল হাইস্কুল বনাম দেবহাটা উপজেলার চাঁদপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

নির্ধারিত ৫০ মিনিটের খেলায় প্রথমার্ধে কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল পর পর ২টি গোল করে দলকে এগিয়ে নেয়। দ্বিতীয়ার্ধে টান টান উত্তেজনা খেলায় কোন দলই গোল না করতে পারায় কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট হাইস্কুল ২-০ গোলে জয়লাভ করে জেলা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে। দলের পক্ষে সোহান ও কালাম ১টি করে গোল করে। মাঠে থেকে খেলাটি উপভোগ করেন কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রব, সিনিয়র শিক্ষক এসএম গোলাম রব্বানী, মনিরুল ইসলাম, মাহফুজা খানম, কলারোয়া ক্রিকেট একাডেমির পরিচালক হাসনাঈন মিলন, ফুটবলার ফরহাদ হোসেন বাবু, ক্রিকেটার জাহাঙ্গীর সহ বিপুল সংখ্যাক শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও সমর্থকবৃন্দ।

প্রকাশ থাকে যে, গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ফুটবলে এই প্রথম বারের মত কলারোয়া উপজেলা জেলা চ্যাম্পিয়ন হয়। জেলা চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় সোমবার সকাল ১০ টায় ওই স্কুলের পক্ষ থেকে কলারোয়া পৌর সদরে এক বিশাল আনন্দ মিছিলের আয়োজন করা হয়েছে। সকল ক্রীড়া মোদিদের ওই মিছিলে অংশ গ্রহণ করার আহবান জানানো হয়েছে।

এদিকে, কলারোয়া জিকেএমকে পাইলট মডেল হাইস্কুল এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে ২০১২, ২০১৩, ২০১৫ সালে সাতক্ষীরা জেলা বেসরকারি স্কুলগুলোর মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করে। ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ২০১২, ২০১৪, ২০১৫ সালে ফুটবলে উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়। খেলা শেষে জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান এর সভাপতিত্বে চ্যাম্পিয়ন দলের হাতে প্রধান অতিথি হিসাবে পরস্কার তুলে দেন সংসদ সদস্য রিফাত আমিন।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শিক্ষা অফিসার বাংলাদেশের ক্রিকেট বিস্ময় সৌম্য সরকারে গর্বিত পিতা কিশোরী মোহন সরকার।