মেইন ম্যেনু

গয়েশ্বরের ‘ভুয়া’ ফেসবুক আইডি দিয়ে চাঁদা দাবি

নিজের ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে একটি সংঘবদ্ধ প্রচারক চক্র প্রবাসীদের কাছে চাঁদা দাবি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি ইতোমধ্যে কেরানীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন বলে জানিয়েছেন গয়েশ্বর।

আজ শনিবার সকালে নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে গয়েশ্বর একথা জানান।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমার একটা ফেসবুক আইডি আছে, এছাড়া আর কোনো আইডি নেই। আমার নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে একটি সংঘবদ্ধ চক্র আমার জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহ করে বিদেশে বসবাসকারী বাংলাদেশিদের কাছে চাঁদা চাচ্ছে। এর ফলে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘প্রশাসনকে অনুরোধ করবো এ সংঘবদ্ধ চক্রটিকে আইনের আওয়তায় নিয়ে আসবেন। এতে আমিসহ অনেক ভুক্তভোগী উপকৃত হবেন।’

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘সরকার ও প্রশাসনের পদক্ষেপের অপেক্ষায় আছি, কাজ না হলে পরবর্তী সময়ে আমি আমার বক্তব্য দেব।’

এভাবে তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহারের মাধ্যমে তাকে যেকোনো সময় বিপদে ফেলা হতে পারে বলে আশঙ্কা করেন গয়েশ্বর।

এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নামে একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি খোলা হয়েছে বলে দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়। এ বিষয়ে বিএনপি যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন প্রশাসনকে আমরা জানিয়েছি, কিন্তু বর্তমানে কী অবস্থায় রয়েছে তা আমরা অবগত নই।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, সহদপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ।