মেইন ম্যেনু

ঘরোয়া উপায়ে আক্কেল দাঁতের ব্যথা দূর

পুরোপুরি আক্কেল দিতেই যেন নির্দয় আক্কেল দাঁতের আবির্ভাব। মুখের অন্যান্য দাঁত ওঠার সময় খুব একটা টের পাওয়া যায় না। অথচ ব্যথা ভোগ করে আক্কেল দাঁতের আক্কেল সেলামি দিতে হয়। আক্কেল দাঁত ওঠার সময় ব্যথা করে পুরো মাথা জুড়ে। অন্যান্য ব্যথা সহ্য করা গেলেও আক্কেল দাঁতের ব্যথা সহ্য করা খুবই কষ্টকর। যারা এই অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হননি তাদের পক্ষে অনুমান করাও কঠিন। তবে এর বাস্তব অভিজ্ঞতা খুবই করুন। পেইনকিলার খেয়ে কিছুক্ষণের জন্য রেহাই পাওয়া যায় বটে, পরক্ষণেই আবার ব্যথা শুরু হয়। প্রচণ্ড ব্যথায় কোনোকিছু খাওয়া যায় না। অসহ্যকর এই ব্যথা দূর করতে কার্যকরী কিছু ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করতে পারেন।

– এককাপ লবণ পানি গরম করে কুলি করতে থাকুন, দাঁত ব্যথা কমে যাবে।

– ভ্যানিলা ভিজিয়ে রাখা পানিতে তুলা ভিজিয়ে দাঁতে ধরতে পারেন। ভ্যানিলা দাঁত ব্যথা কমাতে খুব কার্যকর।

– কয়েক ফোঁটা লেবুর রস আক্রান্ত দাঁতে দিলে ব্যথা কমে যায়।

– এক টুকরা তাজা পেঁয়াজ আক্রান্ত মাড়ি দিয়ে চেপে রাখলে ব্যথা কমে যাবে।

– হাতের কাছে থাকা আপেল সিডার ভিনেগারও দাঁত ব্যথা কমাতে বেশ কার্যকর। ভিনেগারে তুলা ভিজিয়ে চেপে রাখুন কিছুক্ষণ।

– আক্রান্ত দাঁত দিয়ে এক টুকরো আদা চিবাতে পারেন। থেতো রসুন লবণ দিয়ে মেখে দাঁতে চেপে রাখলেও একইভাবে আরাম পাবেন।

– চিনি ও দুধ ছাড়া গরম চায়ের লিকার খেতে পারেন। দাঁত ব্যথায় সাময়িক আরাম পাবেন।

– লবঙ্গের তেলের সঙ্গে এক চিমটি গোলমরিচ গুঁড়ো মিশিয়ে আক্রান্ত দাঁতের গোড়ায় লাগাতে হয়। এতে বেশ ভালো ফল পাওয়া যায়।

– সরিষার তেলের সঙ্গে এক চিমটি লবণ মিশিয়ে আক্রান্ত দাঁতের গোড়ায় ডলে দিলেও ব্যথা কমে যায়।