মেইন ম্যেনু

ঘুমানোর আগে হলুদ, আদা এবং নারকেলের দুধ খান আর দেখুন!

সুস্থ থাকতে আপনি তো কত কিছুই করেন। নানা রোগভোগে জর্জরিত হতে কার-ই-বা ভালো লাগে। কিন্তু এবার সহজ একটা রেসিপি ট্রাই করে দেখুন। প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার এক ঘণ্টা আগে এই পানীয় খেয়ে দেখুন, পরদিন সকালে নিজেকে দেখে নিজেরই তাক লেগে যাবে।

এই পানীয়ের প্রধান উপকরণ হল কাঁচা হলুদ। রেসিপি জানার আগে একবার দেখে নেওয়া যাক হলুদের উপকারিতা।

* আর্থারাইটিসের যন্ত্রণা লাঘব করে।

* লিভারের কার্যক্ষমতা বাড়ায়।

* শরীরে রক্তসঞ্চালন বাড়ায়।

* হজম ক্ষমতা ভালো করে।

* এর অ্যান্টিসেপটিক উপাদান আলসার সারাতে সাহায্য করে।

এই পানীয়ের দ্বিতীয় উপকরণ হল নারকোলের দুধ। এবার দেখে নেওয়া যাক নারকোলের দুধের উপকারিতা।

* নারকোলের দুধে প্রচুর স্বাস্থ্যকর ফ্যাট থাকায় পাকস্থলীতে ব্যাকটিরিয়ার আক্রমণের ফলে পেটের যে সব গোলমাল দেখা দেয়, তা সারাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয় নারকোল দুধ।

এ ছাড়া এই পানীয়ে মেশাতে হবে মধু। যার মধ্যে রয়েছে অ্যামাইনো অ্যাসিড, নানা প্রকার এনজাইম, মিনারেলস এবং ভিটামিনস। যা হজম ক্ষমতাকে ভালো করতে সাহায্য করে।

এবার জেনে নিন এই জাদু-পানীয়ের রেসিপি।

উপকরণ:

২ কাপ নারকোলের দুধ, এক চা চামচ হলুদগুঁড়ো, টাটকা আদার এক ইঞ্চি লম্বা করে কাটা টুকরো অথবা এক চা চামচ আদা গুঁড়ো, এক চিমটে গোলমরিচ গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ অর্গ্যানিক মধু।

প্রণালী:

মধু ছাড়া অন্য সব উপরকণ একটা বড় বাটিতে মেশান। এই মিশ্রণটা একটা সসপ্যানে ঢালুন এবং ততক্ষণ পর্যন্ত গরম করুন, যতক্ষণনা ছোট ছোট বাবল দেখা যাচ্ছে। বাবল দেখা দিলে ৫ মিনিট কম আঁচে গরম করুন। শেষে মধু মিশিয়ে গরম গরম পান করুন।

এই পানীয় বানানো সহজ এবং খুবই সুস্বাদু। হজমের সমস্যা, পেটের গোলমালে ম্যাজিকের মতো কাজ করে এই পানীয়।