মেইন ম্যেনু

ঘুম থেকে তুলে নাবালিকাকে ধর্ষণ, অতঃপর

ভারতের বীরভূমে ঘুমন্ত অবস্থায় তুলে নিয়ে গিয়ে এক নাবালিকাকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ উঠেছে। উত্তপ্ত তারাপীঠের রামভদ্রপুর গ্রাম। পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার রাতে ঠাকুমার পাশে ঘুমিয়েছিল পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী। রাত ১টা নাগাদ, ঘুম ভেঙে যায় দাদির। তিনি দেখেন, পাশে নাতনি নেই। রাতভর খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি নাবালিকাটাকে।

শুক্রবার সকালে বাড়ির কাছে একটি পরিত্যক্ত কুঁড়ে ঘরে তার দেহ পড়তে থাকতে দেখেন গ্রামবাসীরা। পরিবারের অভিযোগ, ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে, পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। ঘটনার সিবিআই তদন্তের দাবি তুলেছে গ্রামবাসীরা।

গ্রামবাসীরা জানান, রাতে ঠাকুমার সঙ্গে শুয়েছিল। রাতে দেখে পাশে নেই। পরে দেহ উদ্ধার। গ্রামের দাবি সিবিআই তদন্ত। তারাপীঠ থানায় ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতের পরিবার। এই অভিযোগের ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে কয়েকজনকে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশেরও অনুমান, ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই বিষয়টি স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।