মেইন ম্যেনু

‘ঘুষ ছাড়া চাকরি হলে হাফ প্যান্ট পরে ঘুরে বেড়াবো’

নিয়োগ বাণিজ্য ও ঘুষের পথ সুগম করার অসৎ উদ্দেশ্যেই নার্সদের পরীক্ষা নেয়ার কথা বলা হচ্ছে বলে মনে করেন চিকিৎসক আমিনুল ইসলাম। তাই ফেসবুক স্ট্যাটাসে নার্সদের আন্দোলনে সমর্থন এই চিকিৎসক।

ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘ঐতিহ্যগত নার্সদের চাকুরী হয় সিনিয়রটি তথা ব্যাচ ভিত্তিক। কেউ হয়তো বছর দশেক ধরে অপেক্ষায় আছে তার পালা যখন আসবে তখন চাকুরী হবে। এবং অবশেষে তারা সেটা পায়। Better late than never!

তারা সাধারণত অর্থনৈতিকভাবে বেশ স্বচ্ছল এমন পরিবার থেকে আসেনা। তাদের প্রশিক্ষন ও শিক্ষাটাই এরকম যে তা প্রয়োগ করতে হলে হাসপাতালে সংযুক্ত থাকতে হয়। প্রাইভেট সেবা বা প্র্যাক্টিস দিয়ে রোজগারের কোন সুযোগ নেই।

MtFmO9eucGur

এখন হঠাৎ এমন কি হলো যে পরীক্ষা দিয়ে চাকুরী পেতে হবে? আপনি লিখে রাখেন, এর পিছনে কোন সৎ উদ্দেশ্য নেই। একমাত্র উদ্দেশ্য ঘুষ বানিজ্য। এই দেশে ঘুষ ছাড়া চাকুরী হয়না। নতুন পদ্ধতিতে নার্সদেরও ঘুষ ছাড়া চাকুরী হবেনা। প্রাইমারী স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ থেকে শুরু করে যে কোন সরকারী চাকুরীতে কয়েক লক্ষ টাকা ঘুষ ছাড়া কারো চাকুরী হয়েছে এমন একটা উদাহরণ যদি কেউ দিতে পারেন আমি হাফপ্যান্ট পড়ে সারা ঢাকা শহর ঘুরে বেড়াবো।

ঘুষ বানিজ্যের নিত্যনতুন পথ আবিষ্কারে আমরা বেশ মেধার পরিচয় দিচ্ছি। এই যে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা ও ধানের শীষ মার্কার প্রবর্তনের পিছনে মুল (অথবা একমাত্র) উদ্দেশ্যই ছিল মনোনয়ন তথা মার্কা বাণিজ্যের মাধ্যমে পয়সা হাতানো।

দুর্নীতি করব- এই নিয়্যতে সর্বশেষ যে ধান্ধাটা কর্তৃপক্ষ নিয়েছে তা হলো নার্সদের চাকুরী প্রদানের ব্যাচ ভিত্তিক system টি বাতিল করে তাতে পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে আসা। অন্যায়ের বিরুদ্ধে নার্সদের আন্দোলন সফল হোক’।