মেইন ম্যেনু

ঘুষ না পেয়ে নির্যাতন : দুই পুলিশকে তলব

আবু সাঈদ নামে এক যুবকের কাছ থেকে ঘুষ না পেয়ে থানায় ঝুলিয়ে উল্টো করে নির্যাতন করার ঘটনায় যশোরের দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। দুই পুলিশ কর্মকর্তা হলেন- যশোর কোতোয়ালি থানার এসআই নাজমুল ও এএসআই হাদিবুর রহমান।

একইসঙ্গে ঘটনায় জড়িত থাকায় তাদেরকে আগামী ২৫ জানুয়ারি হাইকোর্টে হাজির হয়ে নির্যাতন করার কারণ ব্যাখ্যা দিতে বলেছেন আদালত।

সেইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তদন্ত করে এক মাসের মধ্যে যশোর জেলা পুলিশ সুপারকে (এসপি) প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি মুহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ দেন। এ তথ্য জানান ওই বেঞ্চের ডিপুর্টি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

উল্লেখ, গত ৪ জানুয়ারি বুধবার থানার ভেতর দু’পায়ের মাঝে গরান কাঠ দিয়ে পিঠ মোড়া করে উল্টো ঝুলিয়ে পেটানো হয় এই যুবককে। আবু সাঈদ যশোর সদর উপজেলার তালবাড়িয়া গ্রামের মাদক বিক্রেতা নুরুল হকের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সাঈদকে বুধবার রাতে আটক করেন যশোর কোতোয়ালী থানার সিভিল টিমের এসআই নাজমুল ও এএসআই হাদিবুর রহমান। পরে তার কাছে দুই লাখ টাকা দাবি করেন ওই দুই কর্মকর্তা। ঘুষ দিতে অস্বীকার করায় আবু সাঈদকে হ্যান্ডক্যাপ পরিয়ে থানার মধ্যে দুই টেবিলের মাঝে গরান কাঠ দিয়ে উল্টো করে ঝুলিয়ে পেটানো হয়। পরে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ওই রাতেই ছাড়া পায় সাঈদ।