মেইন ম্যেনু

চট্টগ্রামে পুলিশি বাধা ঠেকিয়ে বিএনপির সমাবেশ

গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঢাকা বিএনপির সমাবেশ বাধা দিয়েও ঠেকাতে পারেনি পুলিশ। বরং বিপুল মানুষের অংশগ্রহণের কারণে পুলিশ পিছু হটলে বিনা বাধায় মিছিল-সমাবেশ করেছে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি।
শনিবার বিকেল চারটায় নগরীর কাজীর দেউরি মোড় থেকে মিছিল করে দলীয় কার্যালয় নসিমন ভবনে গিয়ে সমাবেশ করেন নেতাকর্মীরা।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি জোনের এসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিএনপির কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে দলীয় কার্যালয়ের সামনে দেড় শ পুলিশ মোতায়েন করা হয়। কিন্তু হঠাৎ তারা দলীয় কার্যালয় ছেড়ে ৫০০ মিটার দূরে কাজীর দেউরি মোড়ে গিয়ে জড়ো হয়। সেখানে জমায়েত হওয়ার কোনো অনুমতি তাদের ছিল না।

এসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে তাদের বাধা দেয়। কিন্তু জমায়েত বেশি হওয়ায় তারা পুলিশকে ঘিরে ফেলে। পরে সেখান থেকে মিছিল নিয়ে দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে সমাবেশ করে তারা। তবে সমাবেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির বিঘœ না হওয়ায় কোনো ‘অ্যাকশনে’ যায়নি পুলিশ।

বিএনপির দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, বিকেল চারটার দিকে মিছিলের জন্য নগরীর কাজির দেউড়ি মোড়ে ভিআইপি টাওয়ারের সামনের সড়কে জড়ো হন বিএনপির নেতাকর্মীরা। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে সেখানে ছিলেন নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাৎ হোসেন, সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ান, সাধারণ স¤পাদক আবুল হাশেম বক্কর এবং নগর মহিলা দলের সভানেত্রী ও কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মণি।

সেখান থেকে মিছিল বের করার জন্য বিএনপির নেতাকর্মীরা প্রস্তুতি নেয়ার সময় নগর পুলিশের কোতোয়ালি জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) জাহাঙ্গীর আলম এবং কোতোয়ালি থানার ওসি জসিম উদ্দিনের নেতৃত্বে শ খানেক পুলিশ তাদের ঘিরে ফেলে।

এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের প্রায় ১০ মিনিটের মতো ধস্তাধস্তি হয়। জড়ো হওয়া নেতাকর্মীদের একটি অংশ পেছন থেকে এসে পুলিশকে ঘেরাওয়ের মধ্যে ফেলে দেয়। এই অবস্থায় শাহাদাৎ হোসেন ও আবুল হাশেম বক্কর ভিআইপি টাওয়ারের সামনে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন।

এরপর মিছিল অগ্রসর হতে থাকলে পুলিশ বাধা সৃষ্টির চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। বিএনপির নেতাকর্মীরা কাজির দেউড়ি থেকে মিছিল নিয়ে নাসিমন ভবনে যান। সেখানে দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে সমাবেশ করে বিএনপি। এ সময় কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নেয় পুলিশ।

সমাবেশে ডা. শাহাদাৎ হোসেন বলেন, বিএনপি গণতান্ত্রিক দল। নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলনে বিশ্বাসী। গ্যাসের দাম অস্বাভাবিক বাড়ানোর মতো জনবিরোধী কর্মকা-ের প্রতিবাদ জানাতে বিএনপি রাস্তায় নেমেছে।

পুলিশের সঙ্গে কোনো ধরনের সংঘাত সৃষ্টি হোক তা তারা চান না উল্লেখ করে বিএনপির মহানগর সভাপতি বলেন, ‘এই রাষ্ট্র যেন পুলিশি রাষ্ট্র না হয়। গণতান্ত্রিক আন্দোলনের অধিকার সবার আছে। আমরা পুলিশকে জনগণের বিরুদ্ধে না দাঁড়ানোর আহ্বান জানাচ্ছি।’

আবুল হাশেম বক্কর বলেন, ‘আমরা প্রশাসনকে সম্মান করতে চাই। কিন্তু প্রশাসন যদি গণবিরোধী আচরণ করে, জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় তাহলে গণতান্ত্রিক দল হিসেবে বিএনপি অবশ্যই এর প্রতিবাদ করবে।’