মেইন ম্যেনু

চট্টগ্রাম জয় করল “আইসক্রিম”

সাফাত জামিল শুভ, চট্টগ্রাম থেকে : দেশে বিনোদন জগতের এই মুহুর্তের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় নন্দিত পরিচালক রেদোয়ান রনি’র “আইসক্রিম” চলচ্চিত্র।এর প্রচারণায় কলাকুশলীদের নিরলস পরিশ্রম চলচ্চিত্রটিকে ব্যাপক জনপ্রিয় করে তুলেছে সাম্প্রতিক সময়ে। দর্শক জনপ্রিয়তার বড় প্রমান হিসেবে রয়েছে সিনেমা হলে উপচেপড়া ভীড়। প্রচারণার অংশ হিসেবে গত কিছুদিন আগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন এর নির্মাতা ও অভিনয়শিল্পীরা।কাহিনী, সংলাপ, চিত্রনাট্য এককথায় পুরো চলচ্চিত্রটিই ব্যপক সাড়া জাগিয়েছে তরুণদের মাঝে।

আজকের যুগের তরুন, তরুনীদের প্রেম ভালোবাসা নিয়ে যে সমস্যা বা মনস্তাত্বিক দ্বন্দ তার একটা দার্শনিক সমাধান দেখায়। ফুলের টবে গাছ, সে টবে আগাছার বেড়ে ওঠা এবং এক সময় সেই আগাছাই মূল গাছটিকে গ্রাস করার অসাধারণ ন্যারেটিভ স্টাইলের চিত্রনাট্যটি এতোটাই স্মার্ট এবং পরিচ্ছন্ন যে প্রতিটা দৃশ্য দর্শকদের হৃদয় ছুঁয়ে যাবে। একদম শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত শতভাগ বিনোদন। আধুনিক যুগের চাহিদা মিটিয়ে দর্শকদের হলমুখী করতে নির্মাতা রেদোয়ান রনি অসাধারণ পারদর্শীতা দেখিয়েছেন। ২ ঘন্টায় একটি গল্পকে এতোটা গোছানো এবং উপভোগ্য করে পর্দায় নিয়ে আসার জন্য শিল্পী ও কলাকুশলীরা প্রশংসা পওয়ার যোগ্য বলতে হবে।

20160520004559

“অত্যন্ত বাস্তবসম্মত কিছু সংলাপ হাস্যরস তৈরীর পাশাপাশি হৃদয়কে স্পর্শ করে’,থিয়েটার ইনস্টিটিউট থেকে বের হয়ে এমনটাই বলছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র প্রতীক।তিনি বলেন, এতোটা উপভোগ্য সংলাপ বাংলা সিনেমায় সব সময় পাওয়া যায় না।লোকেশন এবং সিনেমাটোগ্রাফীতে মুগ্ধ হয়ে প্রশংসা করছিলেন দর্শকরা। সিনেমাহল থেকে বের হয়েও দর্শকদের মুখে মুখে ছিল- সেন্টমার্টিনের অপরূপ দৃশ্য, লঞ্চ ভ্রমনের দৃশ্য, নদীতে অতিথি পাখির ডানা ঝাপটানো কিংবা মুষলধারার বৃষ্টিতে গাড়ীর মধ্যে রোমাঞ্চের চোখধাঁধানো দৃশ্যের কথা,যা চোখ এবং মন দুটোকেই তৃপ্তি দেয়।

‘আইসক্রিম’ চলচ্চিত্রটি গত২৯শে এপ্রিল, ২০১৬ মুক্তি পায়।টপ অব মাইন্ড, পপর্কন ফিল্মস, পিং পং এন্টারটেইনমেন্ট এর প্রযোজনায়, অভিনয় করেছেন উদয়, রাজ, তুষি, ওমর সানী, দিতি এবং এটিএম শামসুজ্জামান।কাহিনী ও পরিচালনায় দেশের মিডিয়া জগতের অত্যন্ত জনপ্রিয় মুখ রেদওয়ান রনি।