মেইন ম্যেনু

চরমোনাই পীরের ভাইকে জামায়াতের চ্যালেঞ্জ

সৌদি আরবে জামায়াতের কতিপয় লোক ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির ও চরমোনাইর পীরের ভাই মুফতি সৈয়দ মোহাম্মাদ ফয়জুল করীমকে মেরে ফেলার চক্রান্ত করেছিল মর্মে তিনি যে অভিযোগ করেছে এর সত্যতা প্রমাণ করতে পারবেন না বলে চ্যালেঞ্জ করেছেন জামায়াতের নায়েবে আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান। একই সঙ্গে মুফতি ফয়জুল করীমের অভিযোগ তার মনগড়া এবং কাল্পনিক বলেও দাবি করেছে জামায়াত।

আজ রবিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে অধ্যাপক মুজিব এ চ্যালেঞ্জের কথা বলেন।

বিবৃতিতে অধ্যাপক মুজিব বলেন, “ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির চরমোনাইর পীরের ভাই মুফতি সৈয়দ মোহাম্মাদ ফয়জুল করীম গত ১১ জুলাই সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে ‘জামায়াতের লোকজন তাকে গোয়েন্দা দিয়ে গ্রেপ্তার করিয়ে মেরে ফেলার চক্রান্ত করেছিল’ মর্মে যে ভিত্তিহীন মিথ্যা মন্তব্য করেছেন আমি তাতে বিস্ময় প্রকাশ করছি ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, গত জুন মাসে তিনি সৌদি আরবে গিয়ে গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনার সাথে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কারো কোনো সম্পর্ক নেই। কাজেই তাকে মেরে ফেলার জন্য জামায়াতের চক্রান্ত করার প্রশ্নই আসে না। তিনি জামায়াতের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছেন তা সম্পূর্ণ তার মনগড়া ও কাল্পনিক। আমি চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে চাই যে, তিনি তার মন্তব্যের সত্যতা কখনো প্রমাণ করতে পারবেন না। তার সাথে জামায়াতে ইসলামীর কোনো শত্রুতা নেই। কাজেই জামায়াতের লোকেরা তাকে গ্রেপ্তার করাতে কিংবা মেরে ফেলার চক্রান্ত করতে যাবে কেন? অন্যের ক্ষতি করার চক্রান্তের রাজনীতিতে জামায়াতে ইসলামী কখনও বিশ্বাস করে না।

কাজেই জামায়াতে ইসলামীর বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন মিথ্যা প্রচারণা চালানো থেকে বিরত থাকার জন্য আমি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির ও চরমোনাইর পীর সাহেবের ভাই মুফতি সৈয়দ মোহাম্মাদ ফয়জুল করীমের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”