মেইন ম্যেনু

চলন্ত গাড়িতে তুলে মহিলাকে গণধর্ষণ

আবার চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণ। আবার ঘটনাস্থল দিল্লি। কিন্তু এ বার আগের চেয়েও বেপরোয়া ধর্ষকরা। একটু নির্জন পথে মহিলাকে হাঁটতে দেখেই তাঁর সামনে গাড়ি দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয়। গাড়ি থেকে নেমে গিয়ে এক জন টেনেহিচঁড়ে গাড়িতে তোলে মহিলাকে। তার পর চলন্ত গাড়িতে তাঁকে পর পর চার জন ধর্ষণ করে। খবর-আনন্দবাজার

শুক্রবার রাত ১০টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব দিল্লির আনন্দ বিহার এলাকায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আনন্দ বিহার এলাকার একটি শপিং মলের কাছ থেকে মহিলাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। রাতের খাবার কেনার জন্য ঐ মলের কাছেই একটি রেস্তোঁরায় যাচ্ছিলেন মহিলা। অভিযোগকারিণী জানিয়েছেন, হঠাৎই একটি গাড়ি এসে থামে তাঁর সামনে। আচমকা গাড়ি থামতে দেখেই তিনি বিপদ আঁচ করেন। দ্রুত পাশ কাটিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন।

কিন্তু এক জন গাড়ি থেকে নেমে এসে টেনেহিঁচড়ে তাঁকে গাড়িতে তোলে। তার পর গাড়ি চলতে শুরু করে। গাড়ির চার আরোহী পর পর তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগকারিণী পুলিশকে জানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, বাধা দেওয়ার চেষ্টা করায় তাঁকে মারধর করা হয়। চার আরোহী মিলে ধর্ষণের পর মধু বিহার এলাকার একটি নির্জন মোড়ে গাড়ি থেকে তাঁকে ফেলে দেওয়া হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, যে গাড়িতে গণধর্ষণ হয়েছে বলে অভিযোগ সেটিকে চিহ্নিত করা গিয়েছে। এক অভিযুক্তের হদিশও মিলেছে। তবে এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। অভিযোগকারিণীর বয়ান রেকর্ড করা হলেই পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেবে বলে জানানো হয়েছে।