মেইন ম্যেনু

চাঁদপুরে অপহরণের ৫ দিন পর সাভার থেকে অপহৃতা স্কুল ছাত্রীর উদ্ধার

চাঁদপুরে অপহরণের ৫ দিন পর স্কুল ছাত্রীকে ঢাকা সাভার থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত অপরহনকারী চক্রের আল-আমিন (২০) ও সুমন বেপারী (৩০) কে পুলিশ আটক করে। গতকাল বুধবার দুপুরে সাভার নবী নগর বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই জাকির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সসহ অপহৃতা শহরের লেডিপ্রতিমা মিত্র উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী পিংকি(১৩) কে অপহরনের ৫ দিন পর উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

গত শনিবার রাতে চাঁদপুর শহরের ৩নং কয়লাঘাট এলাকায় থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ওই এলাকার আকাশ, নবিন ও শহরের গুয়াখোলা এলাকার সুজন স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক তুলে এনে আল-আমিনের হাতে তুলে দেয়। এ ঘটনার পর স্কুল ছাত্রীর পিংকির মা চাঁদপুর মডেল একটি সাধারণ ডায়েরি করে। পুলিশ ব্যাপক তল্লাশী চালিয়ে শহরের প্রফেসর পাড়া মুন্সি বাড়ি থেকে আল-আমিনের ভগ্নিবাদী সুমন বেপারীকে আটক করে।

তার স্বীকার উক্তি মোতাবেক অভিযান চালিয়ে বুধবার আল-আমিনকে ঢাকা সাভার নবি নগর থেকে আটক করে বুধবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় চাঁদপুর মডেল থানায় নিয়ে আসে। চাঁদপুর শহরের বড় স্টেশন টিলাবাড়ি এলাকার বিল্লাল প্রধানিয়ার ছেলে অটো চালক বিবাহিতা আল-আমিন পুলিশ ও প্রতিনিধিকে জানান কয়লাঘাট এলাকার আকাশ, নবীন গুয়াখোলা এলাকার সুজন অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে পিংকিকে তুলে এনে আল-আমিনে হাতে তুলে দেয়।

এবং ওই রাতেই এমভি মিতালী লঞ্চ যোগে ঢাকায় এনে সিএনজি যোগে সাভার নবী নগর আল-আমিনের ফুফুর বাড়িতে নিয়ে আসে। আল-আমিন আল-আমিন সেখানে পিংকিকে কয়েকবার ধর্ষন করেছে। এসআই জাকির হোসেন জানান, অপহৃতা ও ধর্ষনের স্বীকার পিংকিকে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক বেলায়েত হোসেনের মাধ্যমে মেডিকেল টেস্ট করাচ্ছেন বলে পুলিশ জানান।

গতকাল বুধবার অপহৃতা স্কুল ছাত্রী পিংকির মা মালেকা বেগম বাদী হয়ে চাঁদপুর মডেল থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে।